জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আজ বিকেলে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল এবং গোয়েন্দা ব্য়ুরো প্রধানদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। দীর্ঘ প্রায় দু'সপ্তাহের পর কাশ্মীরের ওপর থেকে একে একে তুলে নেওয়া হচ্ছে সমস্ত বিধিনিষেধ। আর তাই উপত্যকার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়েই গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার পথে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। 

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের পর থেকে উপত্যকার পরিস্থিতি ছিল কার্যত থমথমে। কড়া নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছিল গোটা উপত্যকা। ধীরে ধীরে এক এক করে নিষেধাজ্ঞা তুলে ফেলা হচ্ছে। আজ রাজৌরি জেলার একাধির স্কুল খুলে দেওয়া হয়েছিল। যদিও আজ ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি ছিল খুবই হাতে গোনা। 

জম্মু ও কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় খুলল স্কুল, কিন্তু গড়হাজির পড়ুয়ারা

প্রসঙ্গত জম্মু ও কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল প্রস্তাবের পর থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে যোগাযোগের মাধ্যম হিসাবে ইন্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।এইভাবে প্রায় ২ সপ্তাহ উপত্যকার মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ কার্যত বিচ্ছিন্ন ছিল গোটা দেশের।শনিবার সকাল থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরের একাধিক এলাকায় চালু করা হয় ২-জি ইন্টারনেট পরিষেবা। তবে এখনও অবধি জম্মু, সাম্বা, কাঠুয়া, উধমপুর ও রেসাই -তেই এই ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করা হয়েছে।  সেইসঙ্গে কাশ্মীরের প্রায় ১৭টি টেলিফোন এক্সচেঞ্জ পরিষেবাও চালু করা হয়েছে বলে খবর।