শ্রীনগরের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব টেকনলজিতে পড়তে এদেশের একাধিক রাজ্য থেকে অধিাকাংশ পড়ুয়াই পাড়ি দিয়েছিল জম্মু ও কাশ্মীরে। গত শুক্রবার অমরনাথ যাত্রাকে লক্ষ্য করে হতে পারে জঙ্গি নাশকতা, সেই সম্ভাবনা থেকেই তীর্থযাত্রী ও পর্যটকদের উপত্যকা ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার। 

যেকোনওরকম সমস্যা এড়াতেই একপ্রকার বাধ্য হয়েই এলাকা ছাড়ছেন সেখানকার মানুষরা। ফিরে আসছেন শ্রীনগরের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব টেকনলজির পড়ুয়ারাও। রাজ্যসরকারের তরফ থেকে জম্মু ছাড়ার নির্দেশ জারি হওয়ার পরই কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফে পড়ুয়াদের ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে খবর। এই নির্দেশ পাওয়ার পরই তড়িঘড়ি ক্যাম্পাস ছাড়ছে এনআইটির পড়ুয়ারা। 

এনআইটি একজন দ্বিতীয় বর্ষের আইটি পড়ুয়া জানিয়েছেন, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং তেলেঙ্গানার প্রায় ১০৭ জন পড়ুয়া সেখানে পড়াশোনা করে। আতঙ্কে তাঁরা রওনা দিয়েছে বাড়ির উদ্দেশ্যে। তেলেঙ্গানার রাষ্ট্র সমিতির কার্যনির্বাহী সম্পাদক কে টি রামারাও জানিয়েছেন, তেলেঙ্গানা সরকারের তরফ থেকে পড়ুয়াদের যথাযথভাবে সাহায্য করা হবে। পাশাপাশি ছাত্র-ছাত্রীর পরিবারের লোকজনও যাতে তাঁদের সন্তানের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন সেইমতো নয়া দিল্লির তেলেঙ্গানা ভবনে রেসিডেন্ট কমিশনার শ্রী ভেদান্তম গিরির সঙ্গে যোগাযোগ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর। 

জম্মু ও কাশ্মীরে সেনা-জঙ্গির লড়াইয়ে ইতিমধ্যেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে উপত্যকা। তারওপর আবার জঙ্গি হামলা হতে পারে সেই আশঙ্কায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে অমরনাথ যাত্রা। পাশাপাশি সাম্প্রতিককালে সেখানকার পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেই এনআইটি কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।