অসমের বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে কংগ্রেস। আর ইস্তেহার তৈরির কাজে স্থানীয় বাসিন্দাদের মতামতকেই গুরুত্ব দিচ্ছে শতাব্দী প্রাচিন এই দলটি। গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দেওয়ার জন্য পুরষ্কারের কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। প্রথম পুরষ্কার আইফোন। আর ভালো পরামর্শের জন্য থাকছে নগদ। 

লোকসভার কংগ্রেস সাংসদ গৌরব গগৈ জানিয়েছেন আগামী দু সপ্তাহ ব্যাপি 'অসাম বোচাও  আহক' বা ' আসুন অসম সংরক্ষণ করি' এই কর্মসূচির গ্রহণ করা হয়েছে। এটির মাধ্যেই বিধানসভার নির্বাচনী প্রচার শুরু করা হচ্ছে বলেই মনে করছে দলের একটি অংশ। গৌরব গগৈ বলেছেন, রাজ্যের বিজেপি সরকার মানুষকে সুবিধেভোগী ও ভিক্ষুক তৈরি করার জন্য অর্থ ও উৎসহ দিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি তিনি বলেন ভারতীয় জনতা পার্টি অসমের বাসিন্দাদের বিবেক ও আত্মসম্মান নষ্ট করতে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

রবীন্দ্রনাথের আসন বিতর্ক সংসদেও, অধীরের অভিযোগের সাফাই দিতে ছবি আর চিঠি পেশ অমিত শাহের ...

উহানের পরীক্ষাগারেও গিয়েছিল WHO-র প্রতিনিধিরা, পাওয়া গেল কি করোনার উৎস ...
বর্তমান পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য অসমের বাসিন্দাদের কাছ থেকেই পরামর্শ চেয়েছেন গৌবর গগৈ। আর সেই উদ্দেশ্যেই তাঁদের মূল্যবাল পরামর্শ ভিডিও আকারে পাঠানের আবেদন জানিয়েছে। আর এই ভিডিও পাঠানের জন্য একটি ওয়েবসাইট তৈরি হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি বলেছেন সেরা ভিডিও বা পরামর্শ দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে আইফোন দিয়ে সম্মান জানান হবে। বাকিদের নগদ অর্থ পুরষ্কার হিসেবে দেওয়া হবে। এজাতীয় প্রতিযোগিতার ধারনার পিছনে রয়েছে রয়েছে ২০১৯ সালে রাজ্যে সিএএ বিরোধী আন্দোলন। সেই সময় অনেকেই এজাতীয় ছোট ছোট ভিডিও আপলোড করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু পুলিশ তা প্রতিহত করেছিল। 

অন্যদিকে বিজেপিও জোর প্রচার শুরু করেছে অসম। হতমাসেই বিজেপি অসমের ভোটারদের কাছ ছেকে মতামত সংগ্রহ করেছে গত পাঁচ বছরে কেমনভাবে চলেছে তাদের সরকার। রাজ্যের ১২৬টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভ্রমণের জন্য ৫০টি অডিও-ভিডিও গাড়িও চালু করা হয়েছে পদ্মশিবিরের পক্ষ থেকে।