Asianet News Bangla

গোমাংস কি পুরোপুরি নিষিদ্ধ হবে, 'গরু সুরক্ষা বিল' নিয়ে উঠছে বিতর্কের ঝড়

চলতি সপ্তাহেই অসমে গবাদিপশু সংরক্ষণ বিল। আর তাই নিয়ে ক্রমেই বাড়ছে রাজনৈতিক বিতর্ক।

Assam Cow Protection Bill sparks controversy, Congress says will encourage mob lynching ALB
Author
Kolkata, First Published Jul 16, 2021, 3:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

গরু সুরক্ষা বিল নিয়ে উত্তাপ বাড়ছে অসমে। চলতি সপ্তাহেই বিধানসভায় 'অসম গবাদিপশু সংরক্ষণ বিল, ২০২১' (The Assam Catle Preservation Bill, 2021) উত্থাপন করেছে, দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসা বিজেপি সরকার। আর, বিলটি পেশ হওার পর থেকেই এই বিল নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র বিতর্ক। অসমের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস বিলটির বিরোধিতা করে বলেছে, এর ফলে গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনা আরও বাড়বে। একই সঙ্গে, এটি সরাসরি না হলেও রাজ্যের কোথাও যাতে গো-মাংস বিক্রি না করা যায়, তা নিশ্চিত করতেই এই বিল আনা হয়েছে, বলেও দাবি করেছে বিরোধীরা।

অসম গবাদিপশু সংরক্ষণ বিল, ২০২১-এ প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, হিন্দু, জৈন, শিখ এবং অন্যান্য সম্প্রদায় যারা গো-মাংস খায় না তাদের আবাসস্থনের বা যে কোনও মন্দির কিংবা বৈষ্ণব মঠ বা অন্য কোনও প্রতিষ্ঠানের ৫ কিলোমিটারের ব্যাসার্ধের গরুর মাংস বিক্রি এবং ক্রয় করা নিষিদ্ধ। তবে, ধর্মীয় উদ্দেশ্যে বাছুর, গরু এবং ষাঁড় ব্যতীত অন্যান্য গবাদি পশু জবাই করার জন্য নির্দিষ্ট কিছু উপাসনালয় বা নির্দিষ্ট কিছু অনুষ্ঠানকে ছাড় দেওয়া যেতে পারে। সেইসঙ্গে লঙ্ঘনকারীদের শায়েস্তা করতেও এই বিলে পুলিশ প্রশাসনকে অনেক বেশি ক্ষমতা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। সন্দেহ হলে পুলিশ যেকোনো ব্যক্তিগত মালিকানাধীন আবাসস্থলে প্রবেশ করতে পারবে এবং তল্লাশী করতে পারবে।

বিরোধী কংগ্রেসের দাবি এই বিলটি আসলে বিজেপি এবং আরএসএস-এর অ্যাজেন্ডা। কংগ্রেস সাংসদ আবদুল খালেক বলেছেন, শুধু মব লিঞ্চিং বাড়বে তাই নয়, গবাদিপশু পরিবহনে যেসব বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্চে, তাতে একটি নতুন পারমিট রাজের মাধ্যমে অসমে একটি বিশাল গবাদি পশু চোরাচালানের  সিন্ডিকেট তৈরি হবে। তিনি আরও বলেন,  রাজ্যে মন্দির সর্বত্রই আছে। তাই বিলের শর্ত মেনে গো-মাংস বিক্রি করা যাবে, অসমের প্রায় কোথাও এরকম জায়গা খুঁজে পাওয়া যাবে না। এই বিল সাম্প্রদায়িক হিংসাকেও উসকে দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

এই বিলের সপক্ষে বিজেপি সরকার যুক্তি দিয়েছে ১৯৫১ সালের গবাদি পশু সংরক্ষণ বিলটির বদলে এই বিল আনা হচ্ছে। সংবিধানের ৪৭ নম্বর ধারা অনুযায়ী রাজ্য গবাদি পশু হত্যা নিষিদ্ধ করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তবে কংগ্রেস সাংসদ অভিযোগ করেছেন, এই বিল সংবিধানে উল্লিখিত খাদ্যের মৌলিক অধিকারকেই লঙ্ঘন করছে। তিনি আরও বলেন ৪৭ নম্বর ধারা ব্যবহার করে যদি গোমাংস খাওয়া বন্ধ করে থাকে বিজেপি সরকার তাহলে কেন ৪৮ নম্বর ধারা অনুযায়ী মদ নিষিদ্ধ করছে না?

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios