বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় লখনউ-এর এক বিশেষ সিবিআই আদালত, বুধবার অভিযুক্ত সকলকেই বেকসুর খালাস দিয়েছে। এরপরই এই দিনটিকে ভারতীয় বিচার বিভাগের জন্য একটি কালো দিন বলে অভিহিত করলেন এআইমিম প্রধান তথা হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়াইসি।

তিনি বলেন, 'বিচার বিভাগের ইতিহাসে আজকের দিনটি একটি দুঃখজনক দিন'। এদিন আদালত স্পষ্ট জানিয়েছে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের পিছনে কোনও ষড়যন্ত্র ছিল না। আকস্মিকভাবে, উন্মত্ত জনতা মসজিদ ভাঙতে শুরু করেছিল। ওয়াইসি বিচার বিভাগকে প্রশ্ন করেছেন, 'কোনও কাজ স্বতঃস্ফূর্ত নয় বলার জন্য ঠিক কতগুলি মাসের প্রস্তুতির প্রয়োজন?'

তিনি আরও বলেন মামলায় ন্যায়বিচারের পাওয়া যায়নি। আদালতের উচিত ছিল, বাবরি মসজিদ ধ্বংসের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের দোষী সাব্যস্ত করা। তারা যাতে শাস্তি পায় সেটা নিশ্চিত করার বিষয় ছিল এটা। কিন্তু, এইরকমই রায় তাঁরা প্রত্যাশা করেছলেন। কারণ, অভিযুক্তদের এর আগেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ মন্ত্রীর পদ দিয়ে রাজনৈতিকভাবে পুরস্কৃত করা হয়েছিল। বর্তমানে বিজেপি ক্ষমতায় রয়েছে বাবরি ধ্বংসের কারণেই বলে দাবি করেন আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। কাজেই এই কাজের কারিগরদের সাস্তি যে হবে না, তা জানাই ছিল।

তবে, তারপরও তিনি জানিয়েছেন, সিবিআই আদালতের এদিনের সিদ্ধান্তের জন্য ভারতীয় বিচার বিভাগের জন্য এই দিনটি একটি কালো দিন। সুপ্রিম কোর্ট অযোধ্যা জমি বিতর্ক মামলার রায় ঘোষণার সময়, বাবরি মসজিদ ধ্বংসকে 'আইনের শাসনের গুরুতর লঙ্ঘন' এবং 'একটি গণ উপাসনালয় ধ্বংস করার জন্য গণনাকৃত কর্ম' বলেছিল, বাবরি ধ্বংসের রায়ের দিন মনে করিয়ে দিয়েছেন ওয়াইসি।