প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমন্ত্রণে ৪ দিনের সফরে বৃহস্পতিবার দিল্লিতে এলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরদার করাই এই সফলেরর লক্ষ্য। 

আগামী ৫ তারিখ রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন হাসিনা, ঐদিনই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে তাঁর দ্বিপাক্ষিক বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করার কথা। হাসিনার এই সফরে দুই দেশের মধ্যে এক ডজন চুক্তি সাক্ষর হতে চলেছে। তার আগে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম আয়োজিক ইকোনমিক সামিটে প্রতান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন তিনি। 

দ্বিতীয়দফার মোদী সরকারের আমলে এটাই হাসিনার প্রথম ভারত সফর। দ্বিপাক্ষ্ক বৈঠকে তিস্তা জলচুক্তি ও রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়েও দুই প্রধানমন্ত্রী কথা বলবেন বলে  মনে করা হচ্ছে। এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভার দেখা হয়েছিল দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের। দুই দেশই সেখানে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে এক সঙ্গে চলার কথা বলেছিল। এদিকে হাসিনার ভারত সফরের আগেই  পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান  তাঁকে ফোন করে কুশল বিনিময় করেছেন বলে জানা গেছে। 

এদিকে সম্প্রতি উৎসবের মরশুমে বাংলাদেশ থেকে বিপুল পরিমাণ  পদ্মার ইলিশ এসেছে রাজ্যে। দীর্ঘ সাত বছর পর এবারের পুজোয় ফের পদ্মার ইলিশের স্বাদ পেতে চলেছে বাঙালি।