UAE এবং ভারতের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, বিদেশমন্ত্রীদের বৈঠকে ৮৮ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত

| Nov 22 2022, 10:57 PM IST

Jaishankar

সংক্ষিপ্ত

বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর হায়দরাবাদ হাউসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিদেশমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সাথে দেখা করেন। বৈঠকে রীম আল হাশিমি, আন্তর্জাতিক সহযোগিতার জন্য UAE MoS এবং বিদেশ সচিব বিনয় কোয়াত্রা উপস্থিত ছিলেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিদেশ ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা মন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান দুদিনের ভারত সফরে এসেছেন। তার সঙ্গে একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দলও এসেছে। তাঁকে স্বাগত জানান বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তিনি বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিদেশমন্ত্রীকে ভারতে স্বাগত জানানো সবসময়ই সম্মানের। এ বছর আমাদের চতুর্থ দ্বিপাক্ষিক বৈঠক। দুই দেশের ব্যাপক কৌশলগত অংশীদারিত্বকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এই সাক্ষাত বলে আশাপ্রকাশ করা হয়। এরই মধ্যে দুজনের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়।

বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর হায়দরাবাদ হাউসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিদেশমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সাথে দেখা করেন। বৈঠকে রীম আল হাশিমি, আন্তর্জাতিক সহযোগিতার জন্য UAE MoS এবং বিদেশ সচিব বিনয় কোয়াত্রা উপস্থিত ছিলেন।

Subscribe to get breaking news alerts

বৈঠকে উভয় নেতা ভারত ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য নিয়ে আলোচনা করেন। এতে টাকা ও দিরহামের বাণিজ্যের বিষয়টিও আলোচিত হয়। এর পাশাপাশি, সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৩.৫ মিলিয়ন-শক্তিশালী ভারতীয় সম্প্রদায় থেকে অর্থ পাঠানোর জন্য একটি অর্থপ্রদানের প্ল্যাটফর্ম হিসাবে UPI ব্যবহার করার বিষয়েও আলোচনা হয়েছিল।

এ সময় দুই নেতা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি যৌথ ভিশন ডকুমেন্টও চালু করেন। এই যৌথ ভিশন ডকুমেন্টটি নতুন ক্ষেত্রে এগিয়ে যাওয়ার একটি রোডম্যাপ। এই ক্ষেত্রগুলির মধ্যে রয়েছে আইআইটি স্থাপন, সবুজ হাইড্রোজেন সহযোগিতা, ডেডিকেটেড ফুড করিডোর ফিনটেক স্থাপন, স্বাস্থ্য সহযোগিতা (আফ্রিকাতে উন্নয়ন প্রকল্প সহ), দক্ষতা, প্রতিরক্ষা রপ্তানি ইত্যাদি।

উল্লেখযোগ্যভাবে, ভারত-UAE দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য এই বছর ৮৮ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করবে। UAE এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং চিনের পরে ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম ব্যবসায়িক অংশীদার। চলতি অর্থবছরে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের আনুমানিক ৮৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, এই বছর এখন পর্যন্ত ৭৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের আগের অর্থবছরের অঙ্ক অতিক্রম করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি বিনিয়োগ এসেছে। এর মধ্যে রয়েছে ২০২০ সালের জুনে রিলায়েন্স জিও এবং রিলায়েন্স রিটেইলে দুই বিলিয়ন মার্কিন ডলার, পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির জন্য আদানি গ্রুপের দুই বিলিয়ন মার্কিন ডলার, টাটা মোটরসে (ইলেকট্রিক গাড়ি) এক বিলিয়ন এবং ২০২০ সালের জুনে টাটা পাওয়ারের ৫২৫ মার্কিন ডলার।