ভারতীয়রা মুনি-ঋষিদের সন্তান, বাঁদরের সন্তান নয়।-এমনটাই দাবি করলেন বিজেপির প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী তথা লোকসভার সাংসদ ডক্টর সত্যপাল সিং। তাঁর এই মন্তব্য চার্লস ডারউইন-এর বিবর্তনবাদের তত্ত্ব-কে প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিল। 

এদিন লোকসভায় মানবাধিকার সংক্রান্ত বিল নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন এই বর্ষীয়ান এই বিজেপি সাংসদ। আর তারপরই এমন মন্তব্য করেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ভারতীয় সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য কখনওই মানবাধিকারকে মূল্য দেয় না। বরং মানুষের চরিত্র গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। তাঁর আরও দাবি যে, মানবাধিকার বিষয়ক ধ্যানধারণা একটি পুরদস্তুর পাশ্চাত্য ধ্যানধারণা। আর সেই কারণেই তিনি দাবী করেন, ভারতীয় সংস্কৃতি বলে মানবাধিকার কর্মীদেরও কোনও প্রয়োজন নেই। কারণ মানবাধিকার কর্মীরা পাশ্চাত্য সংস্থার মদতপুষ্ট এবং তারা জঙ্গি, জাতীয়তাবাদ-বিরোধী ও ধর্ষকদের-ই সমর্থক।

 তিনি বলেন, 'ভারতের সংস্কৃতি বলে ভারতীয়রা মুনি-ঋষির সন্তান। যাঁরা এই ধারণায় বিশ্বাসী যে, ভারতীয়রা বাঁদরের সন্তান, তাঁদের বিশ্বাসকে আঘাত না করেই আমি বলব যে আমাদের সংস্কৃতি বলে আমরা ঋষিদের সন্তান'।তাঁর এমন মন্তব্যের পরেই তাঁর বিরোধিতায় সরব হয়ে ওঠেন বিরোধী শিবির।

কিন্তু কোনও কিছুর পরোয়া না করেই তিনি বলেন যে, যাঁরা মানবাধিকারা কর্মীদের মূল্য দিতে জানেন না তাঁরাই এই মন্তব্যের বিরোধিতা করবেন। যদিও এটা প্রথমবার নয় যে, তিনি ডারউইনের বিবর্তনবাদের বিরোধিতা করলেন, এর আগে ২০১৮ সালে তিনি ডারউইনের বিবর্তবাদের বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলেন এবং স্কুল-কলেজের পাঠক্রম থেকে এটি সরিয়ে দেওয়ার কথাও বলেন।