দীপাবলির ঠিক আগের দিন ধনতেরাস। এই দিন  সাধারণত সবাই সোনার, রূপার গয়না কেনেন। সামর্থ্য না থাকলে ধাতুর কোনও বাসন কেনন। এমন রীতিই বছরের পর বছর ধরে চলে আসছে। উত্তরপ্রদেশের এক বিজেপি নেতা এবার ধনতেরাসে লোহার তলোয়ার কেনার পরামর্শ দিলেন। দেওবান্দ শহরের বিজেপির  প্রেসিডেন্ট গজরাজ রানা জানিয়েছেন,  সামনেই অযোধ্যার বিতর্কিত জমি মামলায় রায় বের হবে। তাই এই ধনতেরাসে লোহার তলোয়ার কেনা সব থেকে প্রয়োজন। অদূর  অভবিষ্যতে এই লোহার তলোয়ার কাজে আসবে বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন। 

অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি মামলার শুনানি শেষ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। খুব শীঘ্রই এই হামলার রায় বের হবে। সেই পরিস্থিতিতে  বিজেপি নেতা গজরাজ রানার মন্তব্য উত্তেজনা ছড়াতে পারে বলে বিশেষজ্ঞ মহল আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। সাংবাদিকদের রানা বলেন, দেশের মানুষ চাইছে অযোধ্যায় বিশাল রামমন্দির হোক, তাই দেশের মানুষের ভগবান রামের দর্শন জানা উচিত। তিনি মন্তব্য করেছেন, 'সুপ্রিম কোর্টের শুনানি শেষ হয়েছে, খুব শীঘ্রই এর রায় বের হবে। মামলার রায় যে রামমন্দিরের পক্ষে যাবে বলে আমরা আত্মবিশ্বাসী।  তাই রায় বের হওয়ার পর পরিস্থিতি বদলে যেতে পারে। সেই সময় লোহার তলোয়ারের প্রয়োজন হতে পারে।  এই লোহার তলোয়ার তখন আমাদের রক্ষা করবে। '

এই মন্তব্যের পরেই সজাগ হয়ে যান রানা। কোনও খারাপ কথা বলেননি বলে তিনি দাবি করেন। তিনি কোনও ধর্ম বা জাতকে ছোট করতে চাননি বলেও দাবি করেন।  নিজের পক্ষে যুক্তি টানতে তিনি বলেন, ' আমাদের ধর্মে অস্ত্রের দেব দেবীকে পুজো করার চল আছে।  আমরাও প্রয়োজনে অনেক সময় অস্ত্র ব্যবহার করি। আমি শুধু বলতে চেয়েছি, অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি মামলায় রায় খুব শীঘ্রই বের হতে চলেছে। সেই সময় পরিস্থিতি খারাপ হতে পারে। প্রয়োজনে আত্মরক্ষার কাজে আসবে তলোয়ার।'