শুনলে অবিশ্বাস্য মনে হতে পরে। কিন্তু, বিজেপি সরকারকে ব্রিটিশ এবং মুঘলদের থেকেও বিপজ্জনক বলে অভিযোগ করল হিন্দু মহাসভা। শুধু তাই নয়, বিজেপির উদ্দেশ্য মুসলিম রাষ্ট্র গঠন এবং তাদের নাম ভারতীয় জিন্না পার্টি হওয়া উচিত বলে ব্যঙ্গও করল এই হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। শুধু তাই নয়, হিন্দু মহাসভার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, হিন্দুত্বের লড়াইয়ে এবার বিজেপিকে পাল্লা দিতে, আগামী লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে এই সংগঠন।

হিন্দু মহাসভার কর্ণাটকের সংসদীয় সচিব ধর্মেন্দ্র বলেছেন, বিজেপির ডিভাইড অ্যান্ড রুল বা বিভেদ ও শাসন নীতি ব্রিটিশ বা মুঘল শাসকদের থেকে আরও বিপজ্জনক। তাঁর অভিযোগ দুর্নীতিমুক্ত ভারত ও হিন্দু রাষ্ট্র গঠনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি। কিন্তু, তারপর তারা বিভিন্ন বর্ণ-ভিত্তিক রাজনীতি করা শুরু করেছে। বিভিন্ন জাতির নামে বিজেপি সরকার উন্নয়ন পরিষদ গড়ে সংশ্লিষ্ট জাতিকে খুশি করার চেষ্টা করছে। বর্ণের ভিত্তিতে তারা ধর্মকে বিভক্ত করছে। এইভাবে চললে ভারতীয় জনগণ আগামী দিনে বিজেপিকে প্রত্যাখ্যান করবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

করোনা রুখতে হিন্দু মহাসভার গোমূত্র পার্টি

সেইসঙ্গে হিন্দু মহাসভার দাবি, দেশের অনেক শহরে ব্রিটিশ অফিসার এবং মুঘল সম্রাটদের নামে রাস্তা বা সার্কেল রয়েছে। একইভাবে, দেশে নাথুরাম গডসের নামেও অন্তত একটি সার্কেল তৈরি করতেই হবে। প্রতিষ্ঠা করতে হবে, গডসের আবক্ষ মূর্তি। একইসঙ্গে কেন্দ্রের ও রাজ্যের সরকারগুলি মহাত্মা গান্ধীকে জাতির জনক হিসাবে অভিহিত করে শিশুদের ভুলপথে চালনা করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এছাড়া হিন্দু মহাসভা দাবি করেছে গডসের জন্মদিনকে অখন্ড ভারত সঙ্কল্প দিবস হিসাবে উদযাপন করতে হবে।