এজলাস চলাকালীন লখনউ আদালত চত্বরে তীব্র বিস্ফোরণ। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই বিস্ফোরণে রীতিমত আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। এখনও পর্যন্ত এই হামলায় তিন জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা যাচ্ছে।

 

 

প্রতিদিনের মতো এদিনও লখনউয়ের ওয়াজিরগঞ্জ সিভিল কোর্টে  মামলার শুনানি চলছিল। সেই সময় অতর্কিতে ঘটে যায় এই বিস্ফোরণ। নিমেশে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয় আদালত চত্বরে। আদালতের অদূরেই রয়েছে লখনই কালেক্টরেট ও উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা ভবন। সেখানেও মুহুর্তের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন: স্বামীর তৃতীয় বিয়েতে হাজির হলেন প্রথম স্ত্রী, বেদম মার খেলেন দুলহারাজা

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, আইনজীবিদের দুই গোষ্ঠীর বিবাদের জেরেই এই ঘটনা ঘটে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, সঞ্জীব লোধি নামে এক আইনজীবীকে নিশানা করে বোমা ছোড়া হয়েছিল। তিনি লখনউ বার অ্যাসোসিয়েশনের জয়েন্ট সেক্রেটারিষ বোমা ছোঁড়ার ঘটনায় ইতিমধ্যে জিতু যাদব নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে লখনউ পুলিশ। স্থানীয় কোনও দুষ্কৃতীর থেকেই এই বোমা জোগাড় করা হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে। 

আরও পড়ুন: কেজরির শপথে থাকবেন কেবল দিল্লিবাসী, মমতার উপস্থিতি নিয়ে বাড়ছে ধোঁয়াশা

এদিকে বিস্ফোরণের খবর পেয়েই গোটা আদালত চত্বর ঘিরে ফেলে ওয়াজিরগঞ্জ থানার পুলিশ। শুরু হয় তদন্ত। তল্লাশিতে আদালত চত্বর থেকে আরও ৩টি তাজা বোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ। ভরদুপুরে আদালত চত্বরে বিস্ফোরণের পর আইনজীবীরা জড়ো হয়ে এই ঘটনার প্রতিবাদে পুলিশের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।