Asianet News Bangla

'রক্ত ঝড়েছে দুই পক্ষেই', লাদাখে সীমান্ত সংঘর্ষ নিয়ে কী বলল বিদেশ মন্ত্রক

ফের উত্তপ্ত পূর্ব লাদাখের ভারত-চিন সীমান্ত

ভারতের ৩ জন সেনা সদস্য শহিদ হয়েছেন

চুক্তি মানলে এই অবস্থা এড়ানো যেত

আর কি বলল চিন

Both Sides Suffered Casualties, China Violently Tried To Change Status Quo, Says MEA
Author
Kolkata, First Published Jun 16, 2020, 9:10 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সোমবার রাতে পূর্ব পূর্ব লাদাখের ভারত-চিন সীমন্তে দুই পক্ষেরই রক্ত ঝড়েছে। আর তা হয়েছে শুধুমাত্র ওই অঞ্চলে চিনের একতরফাভাবে স্থিতাবস্থা পরিবর্তনের চেষ্টার জন্যই। ভারত-চিন সীমান্ত সংঘর্ষে ১ সেনা আধিকারিকসহ মোট তিন সেনা সদস্য শহীদ হওয়ার ঘটনা নিয়ে এমনটাই জানালো ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক।

মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, উচ্চস্তরে হওয়া চুক্তিটি চিন চূড়ান্তভাবে অনুসরণ করলে উভয়পক্ষের এই রক্তক্ষয় এড়ানো যেত। বিদেশ মন্ত্রকের নবনিযুক্ত মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, 'সীমান্ত পরিচালনার ক্ষেত্রে তার দায়িত্বশীল ভূমিকার প্রেক্ষিতে ভারতের অবস্থান স্পষ্ট, ভারতের সমস্ত কার্যক্রম সর্বদাই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার ভারতীয় অংশেই থাকে। আমরা চিনা পক্ষের থেকেও তেমনটাই প্রত্যাশা করি।'

সোমবার রাতে পূর্ব লাদাখের গ্যালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনাদের সঙ্গে হিংসাত্মক সংঘর্ষে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক কর্নেল এবং দু'জন জওয়ান নিহত হয়েছেন। এর ফলে দীর্ঘ ৪৫ বছর পর ভারত-চীন সীমান্তে ফের প্রাণহানির ঘটনা ঘটল। অনুরাগ শ্রীবাস্তব আরও বলেছেন, 'ভারত সীমান্ত অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখা এবং আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে মতপার্থক্যের সমাধানের বিষয়ে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী'। তবে তাই বলে ভারতে চিনা আগ্রাসন যে মানা হবে না, তাও তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন। জানিয়েছেন, 'সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতা নিশ্চিত করতেও ভারত দৃঢ়ভাবে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ'।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios