গোটা বিশ্ব জুড়া পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস। যোগ দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বার্তা দিয়েছেন যে, শান্তি-সম্প্রীতি ও উন্নতির জন্যই যোগাভ্যাস করতে হবে। 

তবে সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এই আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে যোগ উৎসবে মেতেছেন সেনা জওয়ানরাও। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তাঁরা সমবেত হয়েছেন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালনের উদ্দেশে। 

জম্মু কাশ্মীরের কুপওয়ারা সেক্টরের বিএসএফ জওয়ানরা পালন করছেন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস ২০১৯।

ধ্যান এবং যোগ-দুটোই তাঁদের রোজকার অভ্যাস। তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নীচে থাকা সত্ত্বেও তাঁদের অভ্যাসে এতটুকু ছন্দপতন ঘটে না। তবে প্রতিদিনের রুটিন অভ্যাসের বাইরে বেরিয়ে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে মেতেছেন ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ।

একই ছবি ধরা পরেছে রোটাং পাসে। সেখানেও ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ-এর পক্ষ থেকে উদযাপন করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের।

জম্মু ও কাশ্মীরের উপত্যকায় যোগ দিবসে মেতেছেন সেখানকার ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ-এর সদস্যরা।

সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল কেবল সেনা জওয়ানরাই নয়, যোগদিবসে মেতে উঠেছে স্নিফার ডগও। যোগদিবসে স্নিফার ডগ-দের ট্রেনিং-এর কিছু অংশ তুলে ধরা হয়েছে এই যোগ দিবসের মাধ্যমে। ট্রেনারদের সঙ্গেই বিএসএফ-এর ডগ স্কোয়াডও এদিন সামিল হয়েছিল আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে।

ভারত-চিন সীমান্তে থাকা ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ-এর সদস্যরাও এদিন সামিল হয়েছিলেন আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে।


মেরিন বিচে বিশ্ব যোগ দিবসে সামিল হয়েছেন ভারতীয় নৌসেনা এবং সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের সদস্যরা।