ফের এক হাড় হিম করা নির্যাতনের কাহিনী। এবারের ঘটনা বাণিজ্যনগরী মুম্বইতে। মানসিক প্রতিবন্ধী এক নাবালিকার উপর শারীরিক নির্যাতন চালানোর অভিযোগ উঠল এক বাসচালক ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে। 

মুম্বইতে নারকীয় এই ঘটনাটি ঘটে গত মাসে। নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৪ জানুয়ারি দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে একজনের নাম সন্দীপ মিশ্র। বছর ২৬-এর সন্দীপ পেশায় বাসচালক। অপর অভিযুক্তের নাম শিবপ্রসাদ যাদব। ২৯ বছরের শিবপ্রসাদ বাসটির ক্লিনার হিসাবে কাজ করত। 

আরও পড়ুন: জগনের প্রস্তাব মেনে এবার তিন-তিনটি রাজধানী পাচ্ছে অন্ধ্র, প্রতিবাদে নেমে সাসপেন্ড টিডিপি-র ১৭ বিধায়ক

গত ১৪ জানুয়ারি নির্যাতিতা নাবালিকার বাড়ির পক্ষ থেকে বাসচালক ও তার সহযোগীর নামে স্থআনীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে ওই দিনই গ্রেফতার হয় দু'জনে। 

আরও পড়ুন: দিল্লি নির্বাচনে বেকায়দায় পদ্ম শিবির, জোট হল না পুরনো সঙ্গীর সঙ্গে, কেজরির বিরুদ্ধে প্রার্থী যুব মোর্চার সভাপতি

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নারকীয় ঘটনাটি ঘটেছিল গত ১৯ ডিসেম্বর। সেই সময় স্কুল থেকে ফিরছিল এই নাবালিকা। বাসচালক ও তার সহযোগী মেয়েটিকে একা পেয়ে তার উপর নির্যাতন চালায়। নাবালিকার পোশাক খুলে তাঁর গোপনাঙ্গে জলের বোতল ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। ঘটনার সময় নাবালিকার মা দেশের বাইরে ছিল। তিনি ফিরলে নির্যাতিতা মাকে সব জানায়। তারপরেই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে পরিবার। 

গ্রেফতারের পর অভিযুক্ত চালক দাবি করেন সহযোগী শিবপ্রসাদ যাদব সেদিন ওই নাবালিকাকে নিষিদ্ধ ছবি ও ভিডিও দেখিয়েছিল। শিশু নিগ্রহের ঘটনায় পকসো আইনে দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।