জেল নয়,নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ  করলে মিলবে পেনশন। ক্ষমতায় এলে সিএএ-বিরোধী আন্দোলনকারীদের জন্য় এমনই 'সুখবর' দিল সমাজবাদী পার্টি। যদিও সপা-র এই প্রতিশ্রুতি নিয়ে পাল্টা আক্রমণে নেমেছে বিজেপি। 

সিএএ বিক্ষোভ নিয়ে উত্তাল হয়েছে উত্তরপ্রদেশ। পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা, গুলি ছোডা়র অভিযোগ উঠেছে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে। যার জেরে অভিযুক্তদের গারদে পুড়েছে পুলিশ। যদিও ক্ষমতায় এলে এই বিক্ষোভকারীদের পেনশন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিল সপা। ইউপি বিধানসভায় এক প্রশ্নের উত্তরে এমনই মন্তব্য় করেছেন সমাজবাদী পার্টি-র নেতা রাম গোভিং চৌধুরী। তিনি বলেন, 'সংবিধান বাঁচানোর জন্য যারা রাস্তায় নেমেছেন তাঁদের জন্য চিন্তিত সমাজবাদী পার্টি। সিএএ আন্দোলনে যারা প্রাণ হারিয়েছেন বা জেলে গেছেন তাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেবে দল। এছাড়াও আক্রান্তদের পেনশন দেওয়া হবে।'

ইতিমধ্য়েই সপা-র এই প্রতিশ্রুতি নিয়ে সরগরম হয়ে উঠেছে রাজ্য রাজনীতি। অখিলেশের দলকে দাঙ্গাবাদদের দল বলে আক্রমণ করেছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের তরফে বলা হয়েছে,সমাজবাদী পাার্টির নেতা অখিলেশ যাদব একবার পাকিস্তানে থেকে আসুক। তাহলে সেখানকার সংখ্য়ালঘুদের পরিস্থিতি উপলব্ধি করতে পারবেন তিনি। মোদী সরকার নাগরিকত্ব আইনের মাধ্য়মে এই নির্যাতিত সংখ্যালঘু মান দিচ্ছেন। আর এরা দাঙ্গাবাজদের সমর্থন করছে। এই মন্তব্য় চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়, সমাজবাদী পার্টি  আসলে দাঙ্গাবাদ,সামজবিরোধীদের দল।

ইতিমধ্য়েই সিএএ ও এনআরসি বিক্ষোভ নিয়ে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি হয়েছে উত্তরপ্রদেশে। বিরোধীদের দাবি, যোগীর পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারিয়েেছেন বহু আন্দোলনকারী। কদিন আগেই পরিস্থিতি সামাল দিতে বেগ পেতে হয় ইউপি পুলিশকে। সেখানে সংখ্যালঘু এলাকায় ঢুকে বিক্ষোভকারীদের পাকিস্তানে চলে যাওয়ার হুমকি দেন এক পুলিশ আধিকারিক। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিয়ো। পরে অবশ্য় ইউপি  পুলিশের ওই আধিকারিক জানান, এলাকায় ঢুকলে কিছু যুবক পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলছিল। যার পরিপ্রেক্ষিতে তাদের পাকিস্তানে যাওয়ার কথা বলেন তিনি।