নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে বৈধতা দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এই বিতর্কিত বিলটি আইনে পরিণত হলেও দেশজুড়ে বিতর্ক অব্যাহত। এর মধ্যেই রাজধানীতে বিশাল জন সমাবেশের ডাক দিয়েছিল কংগ্রেস। 'ভারত বাঁচাও' সমাবেশে অংশ নেন সনিয়া, রাহুল সহ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে মঞ্চে গলা ফাটান কংগ্রেস নেতৃত্ব। আর এদিনই কেরলের  ত্রিশুরের কংগ্রেস সাংসদ টিএন প্রথাপন শীর্ষ  আদালতে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে পিটিশন দাখিল করলেন। 

ইতিমধ্যে এই আইনের বিরুদ্ধে সুপ্রিমকোর্টে ডজনেরও বেশি পিটিশন দাখিল হয়েছে। বিলের আইনি বৈধাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দাখিলকারীদের মধ্যে রয়েছে  কংগ্রেস সাংসদ জয়রাম রমেশ এবং তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ মহুয়া মৈত্র। আবেদন কারীদের মধ্যে রয়েছে অল অসম স্টুডেন্ট ইউনিয়নও। 

রাজনীতিকদের পাশাপাশি পিটিশন দাখিলকারীদের মধ্যে রযেছেন  অবসরপ্রাপ্ত উচ্চপদস্থ সরকারি আমলা, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিনিধি, আইনজীবী, সাংবাদিকরাও। সবারই দাবি, নাগরিকত্ব সংশোধনী বলি দেশের সংবিধান বিরোধী। শীর্ষ আদালতে দায়ের হওয়া এই এক ঝাঁক আবেদনের শুনানি হতে পারে আগামী সপ্তাহে। প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবদের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বিচার করবে এই বিলের সাংবিধানিক বৈধতা।