ছেলের পর এবার মা। দিল্লিতে রামলীলা ময়দানে ভারত বাঁচাওয়ের মঞ্চে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি। সনিয়ার অভিযোগ, দেশের উন্নয়ন ছেড়ে বিভেদের রাজনীতি  করছেন মোদী-শাহ।

লোকসভা নির্বাচনে সব কা সাথ সব কা বিকাশ প্রতিশ্রুতি দিয়ে এসেছিল বিজেপি। কিন্তু গদিতে এসেই উল্টো পথে হাঁটছে মোদী সরকার। দিল্লির রামলীলা ময়দান থেকে প্রধানমন্ত্রীকে এমনই বার্তা  দিলেন কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভাপতি। তিনি বলেন, দেশবাসীকে লড়িয়ে দিয়ে আসল ইস্যুগুলো লুকোচ্ছে মোদী-অমিত শাহ জুটি। যা কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। 

একই কথা শোনা যায় রাহুল গান্ধির মুখ। এদিন রাহুল বলেন, মোদী নিজেই একা হাতে দেশের অর্থনীতি শেষ করেছেন। কালো টাকা উদ্ধারের নামে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল  করেছেন। কিন্তু তাতে দেসবাসীর কোনও লাভ হয়নি। উল্টে বিপদের মুখে পড়তে হয়েছে সবাইকে। নোটবন্দির ধাক্কা সামলে উঠতে পারেনি দেশ। যার জেরে আজ তলানিতে ঠেকেছে দেশের অর্থনীতি। 

এক সময় দেশের অর্থনীতি ৯ শতাংশ ছোঁয়ার মুখে ছিল। সেই সময় চিনের সঙ্গে অর্থনীতিতে পাল্লা দিয়ে চলছিল দেশ। সবাই ভারতকে চিনইন্ডিয়া বলে সম্বোধন করছিল। আর আজ সেই দেশে পেঁয়াজের দাম ২০০টাকা কেজি। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে উত্তাল পরিস্থিতি হয়েছে উত্তর পূ্র্বে। অসমে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছে পরিস্থিতি। বেগতিক দেখে গুয়াহাটিতে মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ বাতিল করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। এমনকী অসমের অবস্থা দেখে তাদের নাগরিকদের এদিকে আসতে নিষেধ করেছে আমেরিকা, ব্রিটেন।