এবার মুম্বইয়ের যানজটের শিকার হলেন খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বিমান ধরতে নিজের গাড়ি ছেড়ে অটো ধরলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। অটোতেই বসেই আওড়ালেন হিন্দি গানের কলি।

 

সাধারণ মানুষের থেকে আলাদা নয় মন্ত্রীরাও। বাণিজ্য নগরীতে যানজটের শিকার হতে পারেন যে কেউ। মঙ্গলবার সেই ঘটনার সাক্ষী থাকলেন খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তবে মাথা গরম করে দুষলেন না মুম্বইয়ের ট্রাফিক ব্যবস্থাকে। উল্টে অটোয় চেপে নস্ট্যালজিক হয়ে পড়লেন বাবুল। মনে করালেন, ১৯৯২ সালে বম্বেতে অটোয় চেপে ছিল তাঁর প্রথম যাত্রা। সেই সময় গানের ক্যারিয়ার গড়তে স্ট্রাগল করছিলেন তিনি। দীর্ঘদিন পরে অটোয় বসে পুরোনো দিনের কথা মনে পড়ছে। টুইটারে তাঁর অটো যাত্রার ছবি নিজেই পোস্ট করেন বাবুল। যেখানে অটোতে খোশ মেজাজে গান গেয়ে চলেন তিনি। বার বার বাবুলের গলায় ধরা পড়ে আবেগের সুর। শেষে যোগ করেন,মুম্বইতে রিকশা মানেই ফানটাসটিক।  

তবে এই প্রথমবার নয়। অতীতেও নিজের মতামত সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। যার জেরে বহুবার বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছে বিজেপির সাংসদকে। সম্প্রতি মমতার মোদী সাক্ষাৎ নিয়ে কটাক্ষ করেন এই সাংসদ। সেখানেও সোশ্যাল মিডিয়ার কথা উল্লেখ করেই মুখ্য়মন্ত্রীকে খোঁচা দেন তিনি। বাবুল বলেন, 'সোশ্যাল মিডিয়ায় মজা করে বলা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী দেখা করতে যাচ্ছেন যাতে রাজীব কুমারকে ছাড় দেওয়া হয়। কারণ রাজীব কুমার ধরা পড়লে যদি ওই ট্রাঙ্কগুলি খোলা হয় তাহলে দিদির ভাইয়ের ছবিগুলিই বেরোবে। একজন মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন, সেটা নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়ায় মজা চলছে। এটা বাঙালিদের কাছে লজ্জার বিষয়। এই লজ্জাটা তাড়াতাড়ি বন্ধ করতে রাজীব কুমারের গতিবিধি সম্পর্কে তথ্য অবিলম্বে মুখ্যমন্ত্রী  বা স্বরাষ্ট্রসচিবের সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়া উচিত।'