ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। কিন্তু তাঁর আগাম জামিন মঞ্জুর করে দিল মুম্বইয়ের একটি আদালত। এক টেলিভিশন অভিনেত্রী অভিযোগ করেছিলেন, বিখ্যাত কসমেটিক ও প্লাস্টিক সার্জেন ভাইরাল দেশাই তাঁকে ধর্ষণ করেছে। গত অগস্ট মাসে চিকিৎসকের ক্লিনিকেই ঘটে এই ঘটনা। ভাইরালের বিরুদ্ধে ৩৭৬ ধারায় মামলা রুজা করা হয়।

যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন চিকিৎসক ভাইরাল। উল্টে গত কয়েকবছর ধরে তাঁদের মধ্যে একটি সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল বলে দাবি করেছেন তিনি। 

নিজের দাবির স্বপক্ষে ছবি এবং অভিনেত্রীর সঙ্গে হোয়াটস আপ চ্যাটের কথোপকথনও জমা দেন চিকিৎসক। গত ৯ অগস্ট তাঁকে ফাঁসাতেই অভিনেত্রী জাল বুনেছিলেন বলে আদালতে দাবি করেন চিকিৎসক । সবকিছু বিবেচনা করে বিচারপতি তাঁর আগাম জামিন মঞ্জুর করেন।