প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বপ্নের সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্প নিয়ে রীতিমত কঠোর মন্তব্য করল সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু তিরষ্কারের পরেও প্রকল্পটিতে ছাড়পত্র দিয়েছে শীর্ষ আদালত। সুপ্রিম কোর্ট বলেছে সেন্ট্রাস ভিস্তা প্রজেক্ট নিয়ে অতিরিক্ত উদ্যোগ দেখাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। কাজ বন্ধ রাখার জন্য স্থগিতাদেশ না দিলেও সুপ্রিম কোর্ট বেশ কিছু শর্ত আরোপ  করেছে। পাশাপাশি বলা হয়েছ সুপ্রিম কোর্ট আশা করছে, কেন্দ্রীয় সরকার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনেই প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নিয়ে যাবে। 

এদিন সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, মামলার সিদ্ধান্তে আবেদনের সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়ার আগেই কেন্দ্রীয় সরকার সেস্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্প নিয়ে অগ্রাসীভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। সুপ্রিম কোর্টের কথায় সরকার অতিরিক্ত উদ্যোগ দেখাচ্ছে সরকার। তবে প্রকল্পের কাজ বন্ধ করার ওপর কোনও স্থাগিতাদেন জারি না করে প্রকল্পের কাজ চালু রাখতে  ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে কাজপত্রের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে সরকার। কিন্তু  এখনই কোনও নির্মান কাজ ভাঙতে পারবে না কেন্দ্রীয় সরকার। পাশাপাশি ওই এলাকায় কোনও গাছও কাটতে পারবে না। একই সঙ্গে বলা হয়েছে সরকার চাইলেই নির্দিষ্ট জমির ওপর কোনও নির্মাণ কাজ চালু করতে পারবে না।  তবে শিলান্যাসের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আগামী ১০ ডিসেম্বের সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্পের শিলান্যাস করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ফাইজারের পর এবার আসরে সেরাম, ভারতে করোনা-টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমতি দাবি ...

চাষের জমিতেই লুকিয়ে ছিল জ্যাকপট, ২০০ টাকার বিনিময় কৃষক পেলেন ৬০ লক্ষর হিরে ...

কেন্দ্রের তরফে আদালতে উপস্থিত ছিলেন সলিসিটার জেনারেল তুষার মেটা। তাঁকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়েছে, এই মুহূর্তে কোনও  নির্মাণ ভাঙা বা গড়া যাবে না। পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ কেন্দ্রীয় সরকার মেনে চলবে বলেও আশা প্রকাশ করা হয়েছে। বলা হয়েছে বিভিন্ন সংবাদে দেখান হচ্ছে সংসদ ভবনের দ্রুত নির্মাণ শুরু করতে তৌড়জোড় শুরু হয়েছে। তা আগামী দিনে করা যাবে না বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত। আদালতের তরফে বলা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার ১০০০ কোটি টাকা খরচ করে নতুন সংসদ ভবন তৈরি করার কথা ঘোষণা করেছে। একই সঙ্গে ২০ হাজার কোটি টাকার সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রজেক্ট নিয়েছে। যেখানে রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে তিন কিলোমিটার এলাকা জুড়ে তৈরি হবে সংসদীয় কার্যালয়। থাবকে আরও আধুনিক ব্যবস্থা।