তারা ভারতকে শান্তিতে থাকতে দিতে চায় না। এমন কিছু লোক নেপাল এবং ভুটান সীমান্ত দিয়ে ঢুকে পড়ছে ভারতে। বৃহস্পতিবার এমনই কথা জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এদিন ছিল সশস্ত্র সীমা বল বা এসএসবি-র ৫৬তম উত্থাপন দিবস। নয়াদিল্লিতে সেই উপলক্ষ্য়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন অমিত শাহ। সেখানে তিনি বলেন ভারতের সঙ্গে নেপাল ও ভুটান, দুই দেশেরই অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু এমন কিছু লোক আছে যারা ভারতের শান্তি দেখতে চায় না। তারা এই দুই দেশের সীমান্ত ব্যবহার করে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে।

ভারত-নেপাল এবং ভারত-ভুটান সীমান্ত রক্ষা করার ভার সশস্ত্র সীমা বল বা এসএসবি-র হাতেই রয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসএসবির জওয়ানদের উজ্জীবিত করে বলেন, দেশের ১৩০ কোটি মানুষ শান্তিতে ঘুমাতে পারেন সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ভরসাতেই। তারাই দেশকে রক্ষা করছে। মাইনাস ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার ঠান্ডা থেকে ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের গরম - সবরকম বিরূপ পরিবেশে তারা সজাগ রয়েছে।

শুধু সীমান্তপক্ষীদের প্রশংসাই নয়, তাদের জন্য খুশির খবরও দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অমিত শাহ এদিন এসএসবি-র জওয়ানদের সামনে ঘোষণা করেন, এক থেকে দেড় বছরের মধ্যেই নরেন্দ্র মোদী সরকার এমন একটি প্রকল্প আনতে চলেছে, যাতে করে সীমান্তরক্ষার কাজে নিযুক্ত সমস্ত জওয়ানরা তাদের শিশু এবং পরিবারের সঙ্গে বছরে অন্তত ১০০ দিন করে কাটাতে পারেন।