গত ৭ সেপ্টেম্বর ভোরে বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছিল ইসরোর। তার পরের দিনই অবশ্য চন্দ্রযান ২ অরবাইটর-এর তোলা থার্মাল ইমেজে চাঁদের বুকেই খোঁজ মিলেছিল ল্যান্ডার বিক্রমের। তারপর থেকে কেটে গিয়েছে ১০টা দিন। এই দশদিনে নাওয়া খাওয়া ভুলে বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালিয়েছে ইসরো। নাসাও তাদের ডিপ স্পেস অ্যান্টেনার মাধ্যমে বিক্রমকে সিগনাল পাঠিয়েছে।

কিন্তু, ক্রমে আশা হারাচ্ছে ইসরো বা বলা ভালো আশা একেবারে ছেড়েই দিল ইসরো। অন্তত তাদের সাম্প্রতিক টুইট বার্তা সেইরকমই ইঙ্গিত দিয়েছে। বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর থেকে সকলে যেভাবে ইসরোর পাশে দাঁড়িয়েছে তার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি। সারা বিশ্বের ভারতবাসীর স্বপ্ন ও আশার জোরেই আগামী দিনে আরও এগিয়ে যাওয়ার অজ্ঞীকার করেছে ইসরো। সঙ্গে আকাশ ছোঁয়ার একটি গ্রাফিক ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

এই টুইটে বিক্রমের সঙ্গে আর যোগাযোগ করার আশা ছাড়ার ইঙ্গিত স্পষ্ট। চন্দ্রযান ২-এর ল্যান্ডার বিক্রম ও প্রজ্ঞান রোভার দুটিরই আয়ু ছিল ১ চন্দ্রদিন, অর্থাৎ পৃথিবীর হিসেবে ১৪ দিন। অর্থাৎ চাঁদে রাত নামতে আর বাকি আছে ৪ দিন। এই মুহূর্তে সন্ধ্যা ঢলেছে চাঁদে। তাই সোলার পাওয়ারে চলা বিক্রম বা প্রজ্ঞানের ব্যাটারি চার্জ করার আর সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

মঙ্গলবার রাতেই বিক্রমের অবতরণ স্থলের উপর দিয়ে উড়ে যাওয়ার কথা মার্কিন লুনার অরবাইটার-এর। নাসা জানিয়েছে ছবি তুলে তারা ইসরোকে দেবে। তবে হাতে সময় এত কম, তাতে এই মুহূর্তে কাজের কাজ হওয়াটা কঠিন। তবে ভবিষ্যতের চন্দ্র অভিযানে তা অবশ্যই সহায়ক হবে।