গত সোমবার শেষ মুহূর্তে ভেস্তে গিয়েছিল যাত্রা। ঠিক সাতদিনের মাথায় ত্রুটি মেরামতি করে চাঁদে পাড়ি জমানোর জন্য তৈরি  চন্দ্রযান ২। অন্ধ্রপ্রদেশের নেল্লোরে সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টারে তাই উত্তেজনাও তুঙ্গে। প্রথমবার যাত্রা ভেস্তে যাওয়ার পরে কি দ্বিতীয় চেষ্টায় কি ভারতের ঐতিহাসিক চন্দ্রাভিযান সফল হবে? আপাতত গোটা দেশের নজরই সেদিকে। 

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এ দিন দুপুর ২.৪৩ মিনিটে চাঁদের উদ্দেশ্যে পাড়ি দেবে চন্দ্রযান ২। তার ঠিক এক ঘণ্টা আগে চন্দ্রযানের ক্রিয়োজেনিক ইঞ্জিনে হিলিয়াম গ্যাস ভরা হবে। একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রথমবার এই পর্যায়েই ত্রুটি ধরা পড়েছিল চন্দ্রযান ২-এ। ফলে এবার নির্বিঘ্নে সবকিছু শেষ করতে বদ্ধপরিকর ইসরোর ইঞ্জিনিয়াররা। 

আরও পড়ুন- ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্রাভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এই নারীবাহিনী ও এক বাঙালি, জানুন তাঁদের কথা

ইসরোর চেয়ারম্যান কে সিভান জানিয়েছেন, ভারতের এবারের চন্দ্রাভিযান সফল হবেই। চাঁদে গিয়ে অনেক নতুন তথ্য তুলে ধরতে সক্ষম হবে চন্দ্রযান ২।

সিভানে বলেন, 'যে ত্রুটি ধরা পড়েছিল, তা ঠিক করতে যথাযথ পদক্ষেপ করা হয়েছে। সেটা করতে গিয়ে গোটা একদিন সময় লেগেছে। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে পারি. এবারে আর কোনও বিভ্রাট ধরা পড়বে না।'

আরও পড়ুন-দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করবে চন্দ্রযান ২, আর কী কী কাজ করবে, জানুন

চাঁদের মাটিতে ভারতের চন্দ্রযান ২- এর সফট ল্যান্ডিং করার কথা। এখনও পর্যন্ত বিশ্বের তিনটি দেশের এই কৃতিত্ব  রয়েছে। সবকিছু ঠিকঠাক চললে সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে চাঁদের মাটি ছোঁবে চন্দ্রযান ২। এখনও পর্যন্ত আমেরিকা, রাশিয়া এবং চিন সফলভাবে এই ধরনের অভিযান সম্পূর্ণ করেছে। স্বভাবতই এই অভিযানের সাফল্যের সঙ্গে দেশের সম্মানের প্রশ্নও জড়িয়ে রয়েছে। তাই কোনওরকম ঝুঁকি না নিয়েই প্রথমবারের উৎক্ষেপণ বাতিল করা হয়েছিল।