মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট থেকে বেরিয়ে মাঝপথে ছেড়ে দিয়েছিলেন গাড়ি। বন্ধ ছিল মোবাইল ফোন। তারপর থেকেই খোঁজ মিলছিল না আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় অভিযুক্ত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের। অবশেষে বুধবার সারাদিন কেটে যাওয়ার পর রাত আটটা নাগাদ জাতীয় কংগ্রেসের সদর দফতরে এলেন তিনি। করলেন সাংবাদিক সম্মেলন। কী বললেন তিনি? দেখে নেওয়া যাক এক নজরে।

- ভারতের গণতন্ত্রের মূল ভিত্তি স্বাধীনতা। সংবিধানের সবচেয়ে মূল্যবান নিবন্ধ হল অনুচ্ছেদ ২১। এই ধারা জীবন ও স্বাধীনতার নিশ্চয়তা দেয়। আমাকে জীবন এবং স্বাধীনতার মধ্যে বেথছে নিতে বললে আমি নির্দ্বিধায় স্বাধীনতাকে বেছে নেব।

- স্বাধীনতা অর্জনের জন্য আমাদের অবশ্যই সংগ্রাম করতে হবে। স্বাধীনতা রক্ষার জন্যও করতে হবে লড়াই।

- আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় আমার বিরুদ্ধে কোনও অপরাধের অভিযোগ করা হয়নি। আমার পরিবারের সদস্যসহ অন্য কারও বিরুদ্ধেও কোনও অপরাধের অভিযোগ নেই।

- কোনও উপযুক্ত আদালতের সামনে সিবিআই বা ইডি কেউই কোনও অভিযোগপত্র দাখিল করেনি।

- সিবিআই-এর দায়ের করা এফআইআর-এও আমার বিরুদ্ধে কোনও অন্যায় কাজের অভিযোগ নেই।

- তবে জনমানসে একটি ধারণা তৈরি হয়েছে, এই মামলায় বোধহয় গুরুতর কোনও অপরাধ সংঘটিত হয়েছে এবং আমি ও আমার পুত্রই এই অপরাধ করেছি। সত্যের থেকে বড় কিছু নেই। কিছু 'প্যাথোলজিকাল মিথ্যাবাদী' এই মিথ্যাগুলি রটাচ্ছে।

- হাইকোর্ট আমাকে অন্তর্বর্তীকালীন সুরক্ষা দিয়েছিল।

- আমার বিরুদ্ধে আইনের হাত থেকে লুকিয়ে থাকার অভিযোগ উঠেছে দেখে আমি বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গিয়েছি। আমি আইনের হাত থেকে লুকিয়ে নেই, বরং আইনের সুরক্ষাই চেয়েছি।

- আমার বিরুদ্ধে বিচার ব্যবস্থা থেকে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু আমি ন্যায়বিচারই চাইছি।

- আমি সারা রাত আমার আইনজীবীদের সঙ্গে বসে আদালতে আবেদনের জন্য কাগজপত্র প্রস্তুত করছিলাম।

- তদন্ত সংস্থাগুলি যদি অসম আচরণ করে, তবুও আমি আইনকে সম্মান করব। শুক্রবার এবং তার আগে আশা করি স্বাধীনতার আলোয় গোটা দেশ আলোকিত হবে।