প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের বিশেষ প্যানেলের জন্য সাধ্বী প্রজ্ঞার নাম মনোনীত করা হয়েছে। তাতেই তীব্র  প্রতিবাদ করেছে কংগ্রেস।  মালেগাঁও বিস্ফোরণের প্রধান অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞাকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ২১ সদস্যের একটি প্যানেলে মনোনীত করা হয়েছে। 

এর জেরেই কংগ্রেস নেতারা  মোদী সরকারের তীব্র নিন্দা করেছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়েছে সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্তকে প্রতিরক্ষা প্যানেলে স্থান দেওয়া হাস্যকর বিষয় ছাড়া আর কিছুই নয়।  কংগ্রেসের তরফে টুইটারে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বিজেপি সরকার এমন একজনকে প্রতিরক্ষা প্যনেলে যুক্ত করেছে, যিনি সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত  এবং গডসেকে সমর্থন করেন।  এই সিদ্ধান্ত প্রতিরক্ষা বাহিনীর জন্য অপমানের বলেও কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়েছে। 

 

কংগ্রেসের সম্পাগক প্রণব ঝাঁ বলেছেন,  মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্ত হাস্যকর ছাড়া আর কিছুই নয়।  এই ধরনের সিদ্ধান্ত গণতন্ত্রের জন্য উপযুক্ত নয়।  আইন মেনে সব কিছু সিদ্ধান্ত নিলেই হয় না। কিছু সিদ্ধান্ত নীতিগতভাবেও নিতে হয় বলে তিনি মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেছেন, ৩০৩টি আসনে  বিজেপি লোকসভা নির্বাচনে জয় লাভ করেছেন।  তাঁদের মধ্যে অনেকেরই বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। প্রতিরক্ষা দপ্তরের প্যানেলে তাঁদের কাউকে নিযুক্ত করা যেতে পারত।  

মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন কংগ্রেস নেতা তথা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জাভির শেরগিল। টুইটারে তিনি লিখেছেন, প্রতিরক্ষা বিভাগের প্যানেলে সাধ্বী প্রজ্ঞাকে নিযুক্ত করে বিজেপি সরকার জাতীয়তাবাদীর আরও একটা উদাহরণ দিলেন।