আবারও বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। শুক্রবার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ১১ লক্ষেরও বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়ে ১৬ হাজারেও বেশি মানুষ। 

এক নজরে ৫ মার্চ দেশের করোনা চিত্র


স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে দেশে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ১ লক্ষ ৭৬ হাজারের বেশি। যা গতকালের তুলনায় ২.৯০৬ বেশি। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় প্রথমে রয়েছে মহারাষ্ট্র। দ্বিতীয় স্থানে কেরল। তৃতীয় স্থানে রয়েছে পঞ্জাব


কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী আক্রান্ত ও সুস্থ হয়ে যাওয়া এই দুটি তালিকায় প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র ও কেরল। অ্যাক্টিভকেসের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পঞ্জব। তৃতীয় স্থানে রয়েছে কর্ণাটাক ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু। আর সুস্থ হয়ে যাওয়া রাজ্যগুলির তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে পঞ্জাব। 

অ্যাকটিভ কেস আর সুস্থতার হারে প্রথম পাঁচ রাজ্য 

মহারাষ্ট্র, কেরল, পঞ্জাব, তামিলনাড়ু ও কর্ণাটককে নিয়ে রীতিমত উদ্বেগ বাড়ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের। তবে দেশএর ২০টি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত একালা থেকে এখনও পর্যন্ত কোনও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। দেশে সুস্থ হয়ে যাওয়া ৯৭ শতাংশই দাদরা নগর হাভেলি, দমন ও দুই বাসিন্দা। এই এলাকাতে সুস্থতার হার ৯৯.৮ শতাংশ। সুস্থ হয়ে যাওয়া মানুষের তালিকায় প্রথমে রয়েছে মহারাষ্ট্র। ২৪ ঘণ্টায় সেখেনে করোনামুক্তি ঘটেছে ৬১৩৫ জনের। ৪,১৫৬ জন সুস্থ হওয়া দ্বিতীয় স্থানে রয়েচে কেরল,  তৃতীয় স্থানে কর্ণাটক (৪৯৬) তারপরে রয়েছে তামিলনাড়ু (৪৯০) ও পঞ্জাব (৩৮৫)।