আবারও ঝড়ের ইঙ্গিত দিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লক্ষ ছাড়িয়েছে। রবিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্যা অনুযায়ী দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লক্ষ ৪২ হাজার ৭৩৩। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত হয়েছে ৭৮ হাজার ৭৬১ জন। গত জানুয়ারী মাস থেকেই করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে দেশ। এই প্রথম দেশে এক দিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৮ হাজারের গণ্ডী ছাড়াল। পাশাপাশি একটানা ২৬ দিন  দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষ স্থান দখল করেছে ভারত। যা নিয়ে কিছুটা হলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।  গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৯৪৮। এপর্যন্ত দেশে মৃত্যু হয়েছে ৬৩ হাজার ৪৯৮ জনের। আক্রান্তের তালিকায় এখনও পর্যন্ত ভারতের আগে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিল। বিশ্বে আক্রান্ত দেশগুলির ক্রম তালিকায় ভারতের স্থান তৃতীয়। 


স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লক্ষের বেশি। যার মধ্যে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৭,৬৫,৩০২। এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে যাওয়া মানুষের সংখ্যা ২৭, ১৩, ৯৩৪  জন। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী দেশে সুস্থ হয়ে যাওয়ার মানুষের হার রীতিমত সন্তোষজনক। প্রায় ৭৬ জন আক্রান্ত মানুষই সুস্থ হয়ে গেছেন বলে দাবি করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। 


এই পরিস্থিতিতে কলকাতাসহ একাধিক রাজ্যগুলিকে মোট্রো পরিষেবা চালু করার ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ২১ সেপ্টেম্বর থেকে নিউ নর্মালের নতুন নিয়ম অনুযায়ী ১০০ জনের জমায়েতের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সামাজিক, রাজনৈতিক কর্মসূচি চালু করার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিতে হবে বলেও নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ২১ সেপ্টেম্বরের আগেই ডাক্তারি ও ইঞ্জিনিয়ারিং-এর প্রবেশিকা পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। 

অন্যদিনে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ইতিমধ্যেই নমুনা পরীক্ষার সংখ্য়া বাড়িছে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ। সংস্থার দেওয়া হিসেব অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত ৪ কোটিরও বেশি মানুষের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শুধুমাত্র শনিবারই নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১০ লক্ষেরও বেশি মানুষের।