মাত্র ৯ দিনেই দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ। গত ২৮ জুলাই ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১.৫ মিলিয়নের বেশি। মাত্র ৯ দিনেই আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লক্ষ ছাড়াল দেশে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সূত্রের খবর আক্রান্তের সংখ্যা ২০,০৬, ৭৬০। 

করোনা আক্রান্ত বিশ্বের ক্রম তালিকায় ভারতের স্থান বর্তমানে তৃতীয়। প্রথম স্থানে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ লক্ষেরও বেশি। ২০লক্ষ ৮০ হাজার আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। আর বৃহস্পতিবারই ২ মিলিয়নের কোটায় প্রবেশ করেছে ভারত। 

দেশে করোনা আক্রান্ত রাজ্যের ক্রম তালিকায় এখনও প্রথম স্থানে রয়েছে মহাারাষ্ট্র। আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষেরও বেশি। দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে রয়েছে দক্ষিণের তিন রাজ্য তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ আর কর্ণাটক। পঞ্চম স্থানে রয়েছে দিল্লি। বর্তমান পরিসংখ্যন অনুযায়ী দেশে গড়ে ৫০ হাজারেও বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন।
 

প্রতিদিন সকালেই স্বাস্থ্য মন্ত্রক দেশে দেশের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নথি প্রকাশ করে। সেই অনুযায়ী এদিন সকালে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৯ লক্ষ ৬৪ হাজারের বেশি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রকাশ করা নথিতে দেশে সুস্থ হওয়া মানুষের সংখ্যা ১৩ লক্ষ ২৮ হাজারের বেশি। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে একাধিক বিবৃতি দিয়ে জানান হয়েছে দেশে সুস্থতার রীতিমত সন্তোষজনক। 

তবে গত সপ্তাহ থেকেই দেশে বেশ কয়েকজন প্রথম সারির রাজনৈতিক ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাস। যারমধ্যে রয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।