আবার শিরোনামে রাজস্থান। দুদিনের মাথায় আবার চোর সন্দেহে দলিত যুবককে গণপিটুনির ভিডিয়ো ভাইরাল। দিন কয়েক আগে, মাত্র ৫০০ টাকা চুরির অভিযোগ দুই দলিত যুবক গণপিটুনির শিকার হয়েছিলেন রাজস্থানের নাগপুর জেলায়। স্ক্রু ড্রাইভার দিয়ে খুঁচিয়ে, নৃশংসভাবে মেরে তাঁদের পায়ুদ্বারে ঢেলে দেওয়া হয়েছিল পেট্রোল। সেই ভিডিও ভাইরাল হতেই গোটা দেশ স্তম্ভিত হয়ে যায়। এর ৪৮ ঘণ্টা কাটতে-না-কাটতেই আবার ভাইরাল হল গণপিটুনির ভিডিও। আবার সেই  পিটুনির শিকার দলিত যুবক। এবারের ঘটনাস্থল রাজস্থানের বারমের। তবে এই ঘটনা ঘটেছে বেশ কিছুদিন আগেই। ভিডিও-টি ভাইরাল হতেই নিগৃহীত যুবকের ভাই থানায় এফআইআর করেছেন।

জানা গিয়েছে, জানুয়ারির ২৯ তারিখ,  নিগৃহীত যুবকে চোর অপবাদ দিয়ে একটি হোটেলে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে  একটি ঘরের ভেতর বন্দি করে রাখা হয় ওই দলিত যুবককে। সেখানে তাঁকে নৃশংসভাবে মারা হয়। তাঁকে জোর করে মদ খাওয়ানো হয়। তারপর একটি লোহার রড তাঁর পায়ুদ্বারে গুঁজে দেওয়া হয়। পুরো ঘটনাটি ভিডিয়ো রেকর্ডিং করা হয়। পায়ুদ্বারে রড গুঁজে দেওয়ার সময়ে যখন ভয়ঙ্করভারে চিৎকার করতে থাকেন ওই দলিত যুবক, তখন চারপাশে রীতিমতো হাসির রোল ওঠে!

বারমের গ্রামীণ থানাতে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।  ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মোতি সিংকে গ্রেফতার করা হয়েছে জানিয়েছে পুলিশ।  দুদিন আগে রাজস্থানের নাগপুর জেলায় প্রায় একইরকম ঘটনা ঘটেছিল। সেখানে দুই দলিত যুবককে একটি বাইকের শোরুম থেকে ৫০০ টাকা চুরির অপরাধে বেধড়ক মারা হয়েছিল। পিটুনির শেষে তাঁদের পায়ুদ্বারে পেট্রোল ঢেলে দেওয়া হয়েছিল পুড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্য়ে। শেষ অবধি অবশ্য় ওই দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সেক্ষেত্রেও পুরো ঘটনাটি ভিডিয়ো রেকর্ডিং করা হয়, এবং গণপিটুনির চোটে চিৎকার করতে থাকা দলিত যুবকদের  ভয়ানক চিৎকার রীতিমতো উপভোগ করতে থাকেন আশপাশে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজন। এক্ষেত্রেও তাই ঘটেছে। হাজার পাঁচেক টাকা চুরির অভিযোগ ওই দলিত যুবকে অপহরণ করে নিয়ে একটি হোটেলের ঘরে নিয়ে গিয়ে বীভৎসভাবে মারা হয়। তারপর পায়ুদ্বারে গুঁজে দেওয়া হয় লোহার রড। উপস্থিত লোকজন তখন রীতিমতো উল্লাস করতে থাকে!