গত অগাস্ট মাসে ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করেছিল মোদী সরকার। জম্মু কাশ্মীর ও লাদাখ-কে দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করেছিল। তখনই একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেছিলেন এরপর লক্ষ্য পিওকে অর্থাৎ পাক অধিকৃত কাশ্মীর। এবার দূরদর্শন, অলইন্ডিয়া রেডিও ও ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগের হাত ধরে সেই পথেই অনেকদূর এগিয়ে গেল মোদী সরকার। শুক্রবার, স্বাধীনতার পর প্রথমবার ভারত আবহাওয়া দফতর পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের মিরপুর, মুজাফ্ফারাবাদ ও গিলগিট শহরের তাপমাত্রা, আদ্রতার মতো আবহাওয়ার বুলেটিন প্রকাশ করল। সেইসঙ্গে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক ঘোষণা করল, এখন থেকে ডিডি নিউজ এবং অল ইন্ডিয়া রেডিও-র নিউজ বুলেটিনে পিওকে-র এই শহরগুলি আবহাওয়ার প্রতিবেদন প্রচার করা হবে।

এদিন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সচিব অমিত খারে বলেন, 'আজ থেকে ডিডি নিউজ এবং অল ইন্ডিয়া রেডিও তাদের প্রাইম-টাইম নিউজ বুলেটিনে মিরপুর, মুজাফ্ফারাবাদ ও গিলগিট-সহ ভারতীয় শহরগুলির তাপমাত্রা এবং আবহাওয়ার প্রতিবেদন প্রচার করবে'। ডিডি নিউজ সকাল ৮.৫৫ এবং রাত ৮.৫৫ মিনিটে এই পূর্বাভাস প্রচার করবে। বেসরকারী চ্যানেলগুলিতেও এরপর থেকে পিওকে-র আবহাওয়ার খবর প্রচার করা হবে।

একদিন আগে বৃহস্পতিবারই আইএমডি-র ডিরেক্টর জেনারেল মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র বলেছিলেন, আবহাওয়া বিভাগ গত কয়েকদিন ধরে তাদের আঞ্চলিক বুলেটিনে এই তথ্য উল্লেখ শুরু করেছে। দিল্লির মৌসম ভবন থেকে প্রকাশিত শুক্রবারের আবহাওয়ার বুলেটিনে, জানানো হয়েছে এদিন মুজাফফারাবাদ এবং গিলগিট শহরের সর্বাধিক এবং ন্যূনতম তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে যথাক্রমে ১.৬ ডিগ্রি এবং ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস নিচে রয়েছে।

হয়তো, অদিকৃত কাশ্মীর-কে ভারতের শাসনাধীনে আনার পথে এটি একটি ছোট্ট পদক্ষেপ। কিন্তু, ভারত-পাক কূটনীতির প্রেক্ষিতে এই পদক্ষেপ প্রায় মানুষের চাঁদে পাড়ি দেওয়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ। অধিকৃত কাশ্মীরে পাকিস্তানেরই শাসন কায়েম রয়েছে। তবে ভারত সরকার বরাবর জানিয়েছে অধিকৃত অংশটিও ভারতেরই অংশ। এবার সরাসরি মিরপুর, মুজাফ্ফারাবাদ ও গিলগিট শহরকে 'ভারতীয় শহর' বলে উল্লেখ করে নিয়মিত আবহাওয়ার সংবাদ দেওয়ার অর্থ সেই দাবিকে অধিকারে রূপান্তরিত করার সূচনা।