কিছুদিন আগেও দূষণের চাদরে ঢাকা পড়েছিল রাজধানী নয়াদিল্লি। আর ডিসেম্বরের মাঝামাঝি হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় পুরোপুরি জবুথবু  দিল্লিবাসী। চলতি সপ্তাহের সোমবার মৌসম ভবন জানিয়েছিল প্রবল শীতে কাঁপবে এবার এনসিআর। আর সেই পূর্বাভাস সত্যি করে তাপমাত্রার পারদ ক্রমেই নামছে।

মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর তাপমাত্রা পৌঁছেছিল ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার ফারাক ছিল মাত্র ১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ১৯৯৭ সালের পর এত জাঁকিয়ে শীত পড়েনি রাজধানীতে। 

মঙ্গলবার দিল্লির সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১২.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর দিনের বেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মঙ্গলবারের মত পরিস্থিতি ছিল বুধবারও। মেঘলা আকাশ হওয়ায় সূর্যের আলো ঢুকতে পাড়ছে না। আর সেই কারণেই তাপমাত্রার পারদ হু হু করে নামছে বলে জানাচ্ছেন আইএমডির প্রধান কুলদীপ শ্রীবাস্তব। 

উত্তরভারতের একাধিক রাজ্যে তুষারপাত ও বৃষ্টি চলবে। তার ফলে দিল্লির তাপমাত্রা আরও কমবে বলে জানাচ্ছেন আবহবিদরা।