লাগামছাড়া বিদ্যুতের বিল এলে অনেক সময়ই খবর হয়। কিন্তু অক্টোবর মাসে দিল্লির অনেক বাসিন্দাই বিদ্যুতের বিল হাতে পেয়ে চমকে উঠেছিলেন। না, মাত্রাতিরিক্ত বিলের জন্য নয়। আসলে ওই গ্রাহকদের সেপ্টেম্বর মাসে বিদ্যুতের বিল বাবদ এক টাকাও দিতে হবে না। 

২০০ ইউনিট পর্যন্ত  যাঁরা বিদ্যুৎ ব্যবহার করবেন, তাঁদের জন্য বিনামূল্যে বিদ্যুৎ দেওয়ার ঘোষণা অগস্ট মাসেই করেছিল আপ সরকার। সেই ঘোষণা অনুযায়ী সেপ্টেম্বর মাসে ১৪.৬৪ লক্ষ পরিবারকে এই সুবিধে দেওয়া হয়েছে। দিল্লি বিদ্যুৎ দফতরের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, মোট ২৮ শতাংশ গ্রাহককে সেপ্টেম্বর মাসে বিদ্যুৎ ব্যবহারের জন্য কোনও বিলই দিতে হয়নি। 

দিল্লি সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, যে গ্রাহকরা মাসে ২০০ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন অথবা যাঁদের বিলের পরিমাণ আটশো টাকা পর্যন্ত, তাঁদের পুরো বিদ্যুতের বিলে একশো শতাংশ ভর্তুকি দেবে অরবিন্দ কেজরিবালের সরকার। শুধু তাই নয়, যে গ্রাহকরা মাসে ২০১ থেকে ৪০০ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ ব্যবহার করবেন, তাঁদের বিদ্যুতের বিলে পঞ্চাশ শতাংশ ভর্তুকি দেওয়া হবে। 

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিবালের দাবি, এই ভর্তুকির ফলে শুধুমাত্র সাধারণ মানুষের আর্থিক সাশ্রয় হচ্ছে তাই নয়, বিদ্যুতের অপচয়ও অনেকটা বন্ধ করা গিয়েছে। দিল্লিতে মোট তিনটি বেসরকারি সংস্থা বিদ্যুৎ বণ্টনের সঙ্গে যুক্ত। তাদের মোট গ্রাহক সংখ্যা ৫২ লক্ষ ২৭ হাজার ৮৫৭। তাঁদের মধ্যে ১৪ লক্ষ ৬৪ হাজার ২৭০ জনই সেপ্টেম্বর মাসে এই ভর্তুকির সুবিধে পেয়েছেন।