দিল্লি দাঙ্গার সময় চাঁদবাগ এলাকায় বেলাগাম হিংসার ঘটনার বিষয়ে দিল্লি পুলিশ দুটি অভিযোগপত্র দাখিল করল। তাদের দাবি গত ফেব্রুয়ারিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরের সময়, ভারতের ভাবমূর্তি খারাপ করার জন্য বহিষ্কৃত আপ কাউন্সিলর তাহির হুসেন, প্রাক্তন জেএনইউ শিক্ষার্থী উমর খালিদ এবং আরও কয়েকজন মিলে ওই দাঙ্গার ষড়যন্ত্র করেছিল।

এই অভিযোগপত্রে দিল্লি পুলিশ দাবি করেছে যে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারত সফরের আগেই তাহির হুসেন, উমর খালিদ এবং ইউনাইটেড এগেইনস্ট হেট সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা খালিদ সইফি একটি বৈঠক করেছিলেন। এই বৈঠকে উমর খালিদ বাকিদের তহবিলের বিষয়ে চিন্তা না করার আশ্বাস দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, দাঙ্গার সংঘটিত করার জন্য প্রয়োজনীয় তহবিল ও সুযোগসুবিধা সরবরাহ করবে  পিএফআই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরের সময় বা তার আগেই এই দাঙ্গা ঘটানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

অভিযোগপত্রে আরও বলা হয়েছে ওই বৈঠকে ফেব্রুয়ারি মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরকালে বা তার আগে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দেশকে অসম্মানিত করার ছক কষা হয়েছিল। বৈছকের অংশগ্রহণকারীরা ঠিক করেছিলেন এর জন্য একটা ধামাকা হওয়া দরকার। আর তার জন্যই দাঙ্গা চালানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল। অপরাধ শাখার চার্জশিটে দাঙ্গায় আর্থিক সহায়তা কীভাবে এসেছিল সেই বিষয়ে তথ্যও রয়েছে।

চাঁদবাগ এলাকার ঘটনার তদন্ত সম্পর্কিত দুটি অভিযোগপত্রই দয়ালপুর থানায় দায়ের করেছে দিল্লি পুলিশ। একটি চার্জশিট আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মা হত্যার তদন্ত বিষয়ে অপরটি দিল্লি পুলিশের অপরাধ দমন শাখা দায়ের করেছে। সেটি চাঁদবাগের হিংসার ঘটনা সম্পর্কিত। দুটি মামলাতেই অভিযোগের আঙুল তোলা হয়েছে তাহির হুসেন-এর বিরুদ্ধে।