একটি মোটরবাইক-কে ধাক্কা মেরেছিল গাড়িটি। এতটাই জোরে, যে ওই বাইক আরোহী ছিটকে পড়েন গাড়ির ছাদে। তৎক্ষণাৎ মৃত্যু হয় তাঁর। সেই অবস্থায় তাঁর মৃতদেহ গাড়ির ছাদে নিয়েই ঘাতক গাড়িটি পারি দিয়েছিল ১০ কিলোমিটার রাস্তা। বুধবার এই ভয়ঙ্কর ঘটনার সাক্ষী হয়েছিল পঞ্জাবের মোহালি শহর। বৃহস্পতিবার ঘাতক গাড়ির চালককে আটক করেছে পুলিশ।

এদিন, পুলিশ জানিয়েছে, ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার পুরোটাই ধরা পড়েছিল ঘটনাস্থলে লাগানো সিসি ক্যামেরায়। সেই রেকর্ড হওয়া ফুটেজের ভিত্তিতেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার নাম  নির্মল সিং। মৃত বাইক আরোহীর নাম যোগেন্দ্র মন্ডল (৩৫)। পুলিশ জানিয়েছে, দুর্ঘটনার পর সেখানে থেমে যোগেন্দ্রকে চিকিৎসা দেওয়ার চেষ্টা তো দূর, জোরে চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দিয়েছিল নির্মল। অন্তত ১০ কিলোমিটার রাস্তা যাওয়ার পর এক জায়গায় যোগেন্দ্র মন্ডলের মৃতদেহ ফেলে দিয়ে সে পালিয়ে যায়। তবে বেশ কয়েকজন পথচারীর চোখে ধরা পড়েছিল সেই ভয়ঙ্কর ঘটনা। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ এই ঘটনার বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে।

তবে, পথ দুর্ঘটনা ক্রমে পঞ্জাবের অন্যতম সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলেই জানিয়েছে সেই রাজ্যের পুলিশ বিভাগ। তাদের হিসাব অনুসারে, ২০২০ সালে পাঞ্জাবে মোট ৫,১৯৪টি পথ দুর্ঘটনা নিবন্ধিত হয়েছে। এইসব দুর্ঘটনায় প্রাণ গিয়েছে ৩,৮৬৬ জনের। এর আগে চলতি বছরের শুরুতেই এই দুর্ঘটনার সমস্যার সমাধানে পাঞ্জাবের পাতিয়ালা জেলায় স্টেশন হাউস অফিসারদের নেতৃত্বে পুলিশের প্রায় ২৫টি বিশেষ দল তৈরি করা হয়েছিল। এই দলগুলি তাদের এক্তিয়ারভুক্ত অঞ্চলের দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকায় নজর রাখে। এর ফলে পাতিয়ালায় দুর্ঘটনার পরিমাণ উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমেছে।