জোরালো ভূমিকম্প হল পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। কেঁপে উঠল রাজধানী দিল্লি-সহ উত্তর ভারতের বিস্তৃর্ণ এলাকা। মঙ্গলবার বিকাল ৪টে ৩৫ মিনিট নাগাদ হয় ভূমিকম্প। বেসরকারি মতে রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৬.১। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আরও ৫০ জন মতো আহত।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক সংস্থা জানিয়েছে, জম্মু  কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগর থেকে ১৪০ কিলোমিটার দূরে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নিউ মীরপুর সিটিতে ছিল এর এপিসেন্টার। ভূত্বক থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে ঘটে ভূমিকম্প। ঘটনার পরপরই সেখানকার বাসিন্দারা অনেকেই ঘটনার বিভিন্ন ছবি সোশ্য়াল মিডিয়ায় দিয়েছেন। তাতে দেখা গিয়েছে নিউ মীরপুর শহরের অধিকাংশ রাস্তাই একেবারে ভেঙে গিয়েছে। এলাকার একটি পুরনো মসজিদও পুরো ধ্বংস হয়ে গিয়েছে বলে খবর।  

এই ভূমিকম্পের প্রভাবে কেঁপে ওঠে রাজধানী দিল্লি-সহ উত্তর ভারতের বিস্তৃর্ণ এলাকাও। এদিন বিকাল ৪টে ৩৫ মিনিট নাগাদ কম্পন অনুভব করেন, নয়াদিল্লি, চন্ডিগড়, জম্মু ও কাশ্মীরের বাসিন্দারা। জোরালো কম্পন অনুভূত হয়েছে, ইসলামাবাদ, খাইবার পাখতুন-সহ পাকিস্তানের একাধীক শহরেও।  

সরকারিভাবে কম্পনের মাত্রা এখনও জানানো না হলেও বেসরকারি এক ভূকম্পন নজরদারি সংস্থা ইএমএসসি জানিয়েছে রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ধরা পড়েছে ৬.১। তবে স্বভাবগতভাবে পাকমন্ত্রী ফাওয়াদ হুসেন দাবি করেছেন ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৭.১।

দিল্লি ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার অনেকেই ভূমিকম্পের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন।