বিজয় মালিয়ার ১৪ কোটি টাকার একটি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। তবে সেটি এদেশে নয়, সুদূর ফ্রান্সে। ইডির একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে ফ্রান্সে থাকা ঋণ খেলাপী লিকার ব্যারণ বিজয় মালিয়ার ১৬ লক্ষ ইউরোর একটি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। যার  মূল্য ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৪ কোটি টাকা। 

ইডির পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দিয়ে জানান হয়েছে তাদের অনুরোধের পর ফ্রান্সের ৩২ এভিনিউ এফওসিএইচ-এ বিজয় মালিয়ার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ফ্রান্স প্রশাসন। তদন্তে দেখা গিয়েছে কিংফিশার বিমান সংস্থার একটি অ্যাকাউন্ট থেকে প্রচুর পরিমাণ টাকা বিদেশে পাঠান হয়েছে। সূত্রের খবর এখনও পর্যন্ত বিজয় মালিয়ার ১১,২৩১,৭০ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। 

অনেক দিন ধরেই ঋণ খেলাপির অভিযোগ তুলে বিজয় মালিয়াকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তারজন্য ব্রিটিশ আদালতে চলছে আইনি লড়াই। ২০১৬ সালে ৯ হাজার কোটি টাকা ঋণ খেলাপির অভিযোগ মাথায় নিয়ে রাতারাতি দেশ ছেড়ে পালিয়ে যায় বিজয় মালিয়া। বর্তমানে সে রয়েছে ব্রিটেনে। তবে ব্রিটেন আদালত মে মাসে বিজয় মালিয়াকে দেশে ফেরত পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু কিছু আইনি জটিলতার কারণে তাকে এখনও দেশে ফারানো যায়নি। তবে ব্রিটেনের হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টে বিজয় মালিয়ার আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ায় তাকে দেশে ফেরানোর বিষয় আশার আলো দেখছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। 

অন্যদিকে দেশের সুপ্রিম কোর্টও জানিয়েছে বিজয় মালিয়া আদালত অবমাননা করছে। কারণে ১৭টি ব্যাঙ্ক কনসার্টিয়াম সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়ে জানিয়েছিল লন্ডনের দিয়াগো নামের একটি সংস্থা থেকে বিজয় মালিয়া তার ছেলে মেয়েদের ব্য়াঙ্ক অ্যাকাউন্টে প্রায় ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডরাল পাঠিয়েছিল। যা ভারতীয় মূল্য় ২৯৯ কোটি টাকা। এই লেনদেন সম্পর্কে আদালতকে কিছুই জানান হয়নি।