সিয়াচেনে ভয়াবহ তুষারঝড়। আর তার ফলেই বরফের আস্তরণের নীচে চাপা পড়লেন বেশ কয়েকজন সেনা জওয়ান। একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বরফের নীচে অন্তত আটজন জওয়ান চাপা পড়েছেন। ইতিমধ্যেই উদ্ধারকাজ শুরু করেছে সেনা। 

সিয়াচেনের প্রায় আঠারো হাজার ফুট উচ্চতায় উত্তর হিমশৈলে তুষারঝড়ের কবলে পড়েন সেনাবাহিনীর টহলদারি একটি দল।  এ দিন বেলা সাড়ে তিনটে নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। টহলদারি দলটিতে মোট আটজন জওয়ান ছিলেন বলে সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে। 

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতেই সিয়াচেনে ৩৫ ফুট পুরু বরফের আস্তরণের নীচে চাপা পড়েছিলেন দশ সেনা জওয়ান। সেবার বরফের বিরাট একটি চূড়ো ভেঙে পড়েছিল সেনা জওয়ানদের উপরে। 

সেনার দেড়শোজনের একটি উদ্ধারকারী দল বরফের নীচ থেকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেছিল ল্যান্স নায়েক হনুমানথাপ্পা কোপ্পাড়কে। সাড়ে উনিশ হাজার ফুট উচ্চতায় বরফের পুরু আস্তরণের নীচে চাপা পড়েছিলেন তিনি। যদিও উদ্ধারের তিন দিনের মাথায় মৃত্যু হয়েছিল ওই সেনা জওয়ানের।