নতুন বছরের শুরুতেই ইপিএফ গ্রাহকদের জন্য দারুণ সুখবর। প্রভিডেন্ট ফান্ডের প্রায় ৬ কোটি গ্রাহক কবে তাদের ইপিএফ অ্যাকাউন্টে ২০১৯-২০ সালের সুদ জমা পড়বে, তার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিলেন।  তাদের একটি বড় বোনান্সা দিয়েছে। নতুন বছরের শুরু থেকেই ইপিএফও, গ্রাহকদের পিএফ অ্যাকাউন্টে ৮.৫ শতংশ বারে সুদের অর্থ জমা করতে শুরু করেছে।

গত বছরের শেষ দিনে, অর্থাৎ গত বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গওয়ার। তিনি জানান, ২০১৯-২০২০ সালের জন্য ৬ কোটিরও বেশি গ্রাহকরা পিএফ-এর পরিমাণের উপর ৮.৫ শতাংশ করে সুদ পাবেন। এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই একটি বিজ্ঞাপ্তি জারি করা হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর থেকেই যাতে গ্রাহকরা এই সুবিধা পেতে শুরু করেন, সেই ব্যবস্থাই করা হয়েছে।

সন্তোষ গাঙ্গওয়ার আরও বলেন, ২০২০ সালের শুরুতেই মোদী সরকার বলেছিল, ২০১৯-২০২০ সালের জন্য প্রভিডেন্ট ফান্ডের পরিমাণে ৮.৫ শতাংশ সুদ দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। ২০২০ সালের পরিস্থিতি এর অনুকূলে ছিল না। তাই মানুষ সেই সময় সেই কথা শুনে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু, বছরের শেষে মোদী সরকার সেই প্রতিশ্রুতি পূর্ণ করেছে।

প্রসঙ্গত, এখন বাড়িতে বসেই ইপিএফ-এর গ্রাহকরা তাদের পিএফ ব্যালেন্স চেক করতে পারেন। এসএমএস, অনলাইন, মিসড কল এবং উমং অ্যাপ ব্যবহার করে যেখান থেকে খুশি পিএফ ব্যালেন্স চেক করা যায়।