কৃষি বিল নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে আলোচনার মধ্যেই আরও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার কতা ঘোষণা করল আন্দোলনকারী কৃষকরা। দিল্লি উপকণ্ঠে অবস্থান বিক্ষোভরত কৃষকরা আগামী মঙ্গলবার অর্থাৎ ৮ ডিসেম্বর দেশজুড়ে ধর্মধটের ডাক দিয়েছে। পাশাপাশি দিল্লির সমস্ত রাস্তা তারা অবরোধ করবে। কৃষকদের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে ওই দিন কেন্দ্রীয় সরকার যাতে কোনও ট্যাক্স সংগ্রহ করতে না পারে সেদিকেও নজর দেবে কারণ। তাই তারা মূলত দেশের সমস্ত জাতীয় সড়ক ও টোল প্লাজাগুলি অবরোধ করবে। 

আন্দোলনকারী কৃষক সংগঠনের নেতা হরিন্দর সিং লাখওয়াল জানিয়েছেন সেই দিন তাঁদের সঙ্গে আরও বেশি মানুষ আন্দোলনে যোগদান করবেন। পঞ্জাবের জামহুলি কৃষান সভার সভাপতি সাতনাম সিং জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকার কয়েক বিষয়ে তাঁদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। কিন্তু তাঁদের মূল দাবি হল তিনটি কৃষি বিল প্রত্যাহার করে নেওয়া। সরকার তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত তারা কিছুতেই থামবেন না বলেও স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন। 

 

বৃহস্পতিবারই আন্দোলনকারী কৃষকদের ৪০টি সংগঠনের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল কেন্দ্র সরকারির কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর ও বাণিজ্য মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। শনিবার অর্থাৎ আগামিকাল দুপুর দুটো নাগাদ আরও একদফা বৈঠকের কথা রয়েছে। কিন্তু গতকালই কৃষকরা জানিয়েছিলেন তাঁরা কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে কথাবার্তার পুরো বিষয়টি নিয়ে আন্দোলনকারী বাকি কৃষক সংগঠনগুলির সঙ্গে কথা বলবেন। তারপরই পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। এদিন সিংহু বর্ডারে আন্দোলনকারী এক কৃষক নেতা স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন তাঁরা আন্দোলন আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। কেন্দ্রীয় সরকার তিনটি আইন প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত তাঁরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেও জানিয়েছেন। গুরুনাম সিং চাদোনি বলে আরও এক কৃষক নেতা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকার যদি আগামিকাল তাদের দাবি না মানে তাহলে তাহলে তাদের আন্দোলন আরও বাড়বে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।