ভারতীয় ট্রেন দেরিতে আসবে বা সময়ের থেকে পরে গন্তব্যে পৌঁছবে সেটাই যেন স্বাভাবিক। ভারতে রেলের এই সময় জ্ঞান নিয়ে অনেক আঞ্চলিক ছড়া বা মজাদার গল্প রয়েছে। কিন্তু সমস্ত ভারতবাসীকে অবাক করে, ট্রেন দেরিতে আসার জন্য ক্ষতিপূরণ দিল রেল। এই ঘটনা ভারতীয় রেলের ইতিহাসে প্রথম। শনিবার দিল্লি লখনউ তেজস এক্সপ্রেস  দুই দিকেই দেরিতে আসে। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ওই দিন তেজস এক্সপ্রেসের সমস্ত যাত্রীকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। 

শনিবার দিল্লিগামী তেজস এক্সপ্রেসের পাশাপাশি লখনউগামী তেজস এক্সপ্রেস দুই ঘণ্টা দেরিতে আসে। সেদিন দিল্লিগামী তেজস এক্সপ্রেসে ৪৫১ জন যাত্রী ছিলেন। পাশাপাশি লখনউগামী তেজস এক্সপ্রেসে যাত্রীর সংখ্যা ছিল প্রায় ৫০০ জন। সকল যাত্রীকে ২৫০ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে রেল জানিয়েছে। লখনউয়ে আইআরসিটিসি এর আঞ্চলিক প্রধান ম্যানেজার অশ্বিনী শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, 'আমরা সমস্ত যাত্রীর মোবাইল নম্বরে একটা লিঙ্ক পাঠিয়েছি। সেই লিঙ্কে গেলেই যাত্রীরা ক্ষতিপূরণের জন্য দাবি করতে পারবেন।' তেজস এক্সপ্রেস ভারতীয় রেলের প্রথম ট্রেন যা আইআরসিটিসি দ্বারা পরিচালিত হয়। ৪ অক্টোবর থেকে তেজস এক্সপ্রেস ভারতীয় আইআরসিটিসি দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। 

জানা গিয়েছে, আইআরসিটিসি এর নিয়ম অনুযায়ী ট্রেন যদি দেরিতে ছেড়েও যদি সময়ের আগে গন্তব্যে পৌঁছে যায় সেক্ষেত্রে যাত্রীরা ক্ষতিপূরণ পাবে না। ট্রেন সময়ে ছেড়ে দেরিতে গন্তব্যে পৌঁছলে অথবা দেরিতে ছেড়ে গন্তব্যে সময়ের পরে পৌঁছলেই যাত্রীরা ক্ষতিপূরণ পাবেন বলে জানা গিয়েছে।