আসামের  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা সঙ্কটজনক। মূলত পোস্ট কোভিড পরিস্থিতিতে আসামের   প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ-এর শারীরিক অবস্থা ক্রমশ জটিল হতেই, গুয়াহাটি মেডিক্য়াল কলেজ ও হাসপাতালের ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয়েছে তাঁকে। 

 

 


'  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর  অঙ্গ-প্রতঙ্গগুলি ক্রমশ কার্যক্ষমতা হারাচ্ছে'

আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা জানিয়েছেন, 'শনিবার দুপুরের পর থেকেই  আসামের  প্রাক্তন  মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ-এর শারীরিক অবস্থা ক্রমশ অবনতি দিকে এগোতে থাকে। দ্রুতই তাঁকে  ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয়।  এই মুহূর্তে তিনি আচ্ছন্ন রয়েছেন। তার অঙ্গ-প্রতঙ্গগুলি ক্রমশ কার্যক্ষমতা হারাচ্ছে।' চিকিৎসকদের মতে, গত ২ দিনের থেকে   প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা এক ঝটকায় খারাপের দিকে এগিয়েছে'। 

 

 


পরের ৪৮-৭২ ঘন্টা আশঙ্কাজনক

আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, ' প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ-এর অঙ্গ-প্রতঙ্গগুলি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় ফেরার জন্য ইতিমধ্য়েই ওষুধ দেওয়া হয়েছে। যদিও ওই ওষুধগুলি কাজ করা শুরু করে, তাহলে তরুণ গগৈ আবার স্বাভাবিকভাবে নিশ্বাস নিতে পারবেন। এবং মুখ্যমন্ত্রীর ডায়ালিসিসের দরকার হতে পারে। তবে এই মুহূর্তে পরের ৪৮-৭২ ঘন্টা আশঙ্কাজনক। তাঁকে ভেন্টিলেশনেই রাখা হবে। চিকিৎসক এবং প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের সঙ্গে কথা বলেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে' বলেছেন আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।