মুখ্যমন্ত্রীর পদ হারানোর পর কি এবার রাজনীতি থেকেই সন্ন্যাস নেবেন এইচ ডি কুমারস্বামী। সেরকমই ইঙ্গিত দিলেন কর্ণাটকের সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। 

সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কুমারস্বামী নিজেই জানিয়েছেন, রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবছেন তিনি। কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, 'আমি রাজনীতি থেকে দূরে সরে যাওয়ার কথা ভাবছি। আমার রাজনীতিতে আসাটা দুর্ঘটনাই ছিল। একইভাবে মুখ্যমন্ত্রী হওয়াটাও একটা দুর্ঘটনা। ভগবান দু' বার আমাকে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সুযোগ দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীর পদে থেকে আম কাউকে সন্তষ্ট করার চেষ্টা করিনি। গত ১৪ মাসে রাজ্যের উন্নয়নের জন্য যা ভাল মনে হয়েছে, সেটাই করেছি। তাই আমি তৃপ্ত।'

নিজের হতাশা উগড়ে দিয়ে কুমারস্বামী আরও বলেন, 'আমি খালি দেখছি আজকের রাজনীতি কোথায় গিয়ে পৌঁছেছে। মানুষের মঙ্গলের জন্য এখন রাজনীতি করা হয় না, পুরোটাই 'জাত, ধর্ম সর্বস্ব' হয়ে দাঁড়িয়েছে। এসবের মধ্যে আমার পরিবারকে আর জড়াবেন না। আমায় শান্তিতে থাকতে দিন। এসব কিছুতে আমি ক্লান্ত। আর আমি রাজনীতিতে থাকতে চাই না।'
প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, তিনি ক্ষমতা চান না। বরং মানুষের মনে জায়গা চান। 

প্রসঙ্গত চোদ্দ মাস ক্ষমতায় থাকার পরে ১৬ বিধায়কের বিদ্রোহে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছে কংগ্রেস- জেডিএস জোট সরকার। মুখ্যমন্ত্রিত্বের পদ হারিয়েছেন কুমারস্বামী। তার পরেই নিজের ক্ষোভ এবং হতাশা ব্যক্ত করে রাজনীতি ছাড়ার কথা ভাবছেন তিনি।