করোনা আতঙ্ক গ্রাস করেছে ভারতের রাজধানীকে। এখনও পর্যন্ত দিল্লিতে কোভিড-১৯ সংক্রমণরে ৭টি কেস পাওয়া গিয়েছে। এর মধ্যে এক প্রৌঢ়ার মৃত্যু হলেও সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ জন। তবে রাজধানীর পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রশাসন। এই অবস্থায় সোমবার সোমবার নিজের মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে ফের বৈঠকে বসলেন মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল। বৈঠক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে  দিল্লির নাইট ক্লাব, জিম, স্পাগুলি বন্ধ রাখা হবে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত। পাশাপাশি বিয়ে ও সামাজিক অনুষ্ঠানগুলি পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন জানান হয়েছে প্রশাসনের তরফে।

আরও পড়ুন: করোনা প্রাণ কেড়েছে বাবার, এবার মেয়ে আক্রান্ত হলেন মারণ ভাইরাসে

"কোনাও সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে  ৫০ জনের বেশি জড়ো হওয়া যাবে না," সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে স্পষ্ট জানিয়েদেন মুখ্যমন্ত্রী। এই নিষেধাজ্ঞা এখনও পর্যন্ত বিয়ের অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য না হলেও বিয়েবাড়ি  এড়িয়ে চলার পরামর্শই দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। 

 

 

এদিকে আগামী দিনে কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করার জন্য দিল্লির ৩ হোটেলকে বেছে নিয়েছে প্রশাসন। লেমন ট্রি, রেড ফক্স এবং আইবিআইএস হোটল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এবিষয়ে কথা বলা হয়েছে। করোনা আতঙ্কে গত সপ্তাহ থেকেই বন্ধ রয়েছে দিল্লির স্কুল, কলেজ এবং সিনেমাহলগুলি। 

আরও পড়ুন: ভারতে কামাল দেখাল সোয়াইন ফ্লু-ম্যালেরিয়া- এইচআইভির মেডিসিন, করোনাকে জিতে ফিরলেন ৩

করোনা মতো মারাত্মক ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দিল্লির সমস্ত অটোরিক্সা এবং ট্যাক্সিগুলিকে নিঃখরচায় জীবাণুমুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেজরি প্রশাসন। পাশাপাশি এখন থেকে দিল্লি মেট্রোয় যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রিনিং-এর ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।