শুধু দেশে নয়, এবার থেকে বিদেশেও বিরোধীদের কড়া নজরদারিতে রাখতে চলেথছে মোদী সরকার। নয়া আইন করে ভিভিআইপি-দের বিদেশ সফরের গোপনীয়তার ওপর কোপ ফেলতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ভিভিআইপিদের বিদেশ ভ্রমণের সময় স্পেশাল প্রোটেকশন সিকিউরিটি বা এসপিজির আধিকারিকদের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। কোনও  ভিভিআইপি যদি এসপিজির কোনও আধিকারিককে গোপনীয়তা ভঙ্গ হওয়া বা অন্য কোনও অজুহাকে না নিয়ে যেতে চান, সেক্ষেত্রে নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে তাঁদের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে বলে সরকারের তরফে সতর্ক করা হয়েছে।

সম্প্রতি, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর কম্বোডিয়া সফর বিতর্ক হয়েছে। এরপরই কেন্দ্রীয় সরকার এই নিয়ম আনায় এই আইন রাজনৈতিক স্বার্থ সিদ্ধির জন্য কিনা তাই নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।  

এতদিন পর্যন্ত বিদেশ সফরে গেলে প্রথমে যেখানে যেতেন, গান্ধী পরিবারের সদস্যরা ততদূরই এসপিজির সদস্যদের নিয়ে যেতেন। তারপরই তাঁকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দিতেন। বাকি সফর ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীদের নিয়েই চলতেন। গোপনীয়তা লঙ্ঘনের যুক্তি দিতেন তাঁরা।

সেই দিন আর রইল না। কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া নীতির জেরে এখন থেকে এসপিজির নিরাপত্তা পাওয়ার অধিকার প্রাপ্ত  সকলকেই কেন্দ্রীয় সরকারের নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে রাখতেই হবে।