সদ্য মালাবদল হয়েছিল। আর তার পরেই মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল বর। এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল বিহারের পটনায়। 

একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিকের খবর অনুযায়ী, ঘটনাটি ঘটেছে পটনার বিজাপত এলাকার সাহাপুর থানা এলাকায়। পুলিশ সূত্রে খবর, মালাবদলের পরেই শূন্যে গুলি ছুড়ে উৎসবে মাতেন বরের বন্ধুরা। আর তখনই সেই গুলি ছিটকে এসে লাগে তাঁর শরীরে। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও তাঁকে বাঁচানো যায়নি। একা বর নন, তাঁর ভাইও একইভাবে গুলিবিদ্ধ হন। তিনিও হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। 

জানা গিয়েছে, রবিবার অখিলপুর থানা এলাকার বাসিন্দা হরসামচক গ্রামের বাসিন্দা সত্যেন্দ্র কুমার বিজাপত এলাকায় বিয়ে করতে আসেন। রাত এগারোটা নাগাদ মালাবদল হয়। এর পরেই রীতি মেনে কনেকে বাড়ির ভিতরে নিয়ে যাওয়া হয়। আর বরকে নিয়ে তাঁর বন্ধুরা মঞ্চের উপরে নাচানাচি শুরু করেন। তখনই তাঁদের মধ্যে একজন বন্দুক বের করে শূন্যে গুলি ছুড়তে আরম্ভ করেন। অসাবধনতাবশত তার মধ্যে তিনটি গুলি ছিটকে গিয়ে বর এবং তাঁর ভাইয়ের শরীরে লাগে। 

দ্রুত আহত দু' জনকে উদ্ধার করে দানাপুরের একটি নার্সিং হোমে নিয়ে যাওয়া হলে সোমবার ভোরে সেখানেই বরের মৃত্যু হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে কে গুলি চালিয়েছিল, তা এখনও চিহ্নিত করতে পারেনি পুলিশ।