সরাসরি যুদ্ধে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের পেরে ওঠা অসম্ভব। তার জন্যই সীমান্তের ওপাড় থেকে নাগারে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে মর্টার ছুঁড়ে চলে পাকিস্তান। কিন্তু, এরপর থেকে সেই কাজ করতে গেলে দুবার ভাবতে হবে পাকিস্তানকে। কারণ, জম্মু কাশ্মীরের কুপওয়ারা সেক্টরে সম্প্রতি নিখুঁত লক্ষ্যে ক্ষেপণাস্ত্র আঘাতের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণরেখার ওপাড়ে থাকা পাকিস্তানি সেনা ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছে ভারত।

বৃহস্পতিবার ভারতীয় সেনার পক্ষ থেকে একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করা হয়। সেখানে দেখা যাচ্ছে ট্যাঙ্ক বিধ্বংসী গাইডেড মিসাইল ও আর্টিলারি শেল ব্যবহার করে সম্পূর্ণ গুঁড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে একটি পাকিস্তানি সেনা ঘাঁটি।

এর কয়েক মাস আগে রাজৌরি সেক্টরেও পর পর কয়েকদিনে যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করেছিল পাকিস্তান। সেই সময়ও গাইডেড মিসাইল দিয়েই পাক রেঞ্জারদের একটি ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছিল ভারত। তৎকালীন সেনাপ্রধান তথা বর্তমান প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াত জানিয়েছিলেন, পাকিস্তানকে তাদের ভাষাতেই জবাব দিতে হবে।

বর্তমানে ভারতের গাইডেড মিসাইল সিস্টেম অত্যন্ত উন্নত। ডিআরডিও-র পক্ষ থেকে জিপিএস প্রযুক্তি ও ইনফ্রারেড প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে এই গাইডিং সিস্টেম তৈরি করা হয়। এই সিস্টেমই বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্রে ব্যবহার করা হয়। ফলে প্রতিটি ক্ষেপণাস্ত্রই একেবারে নিখুঁত লক্ষ্যে গিয়ে আঘাত করে।