ভারতীয় এ দলের হয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে যাওয়ার চেষ্টা করেও ফিটনেস টেস্ট-এ উতরোতে পারেননি হার্দিক পান্ডিয়া। এবার ফিটনেস-এর কারণেই নিউজিল্যান্ড- এ ভারতীয় টেস্ট দল থেকে বাদ পড়লেন এই অলরাউন্ডার। বিসিসিআই-এর তরফেও জানিয়ে দেওয়া হলো, আপাতত এনসিএ-তে রিহ্যাব করবেন হার্দিক। 

গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে দেশের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি টোয়েন্টি ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন হার্দিক। তার পর থেকেই পিঠের চোটের কারণে জাতীয় দল থেকে ছিটকে যান নির্ভরযোগ্য এই অলরাউন্ডার। লন্ডনে গিয়ে অস্ত্রোপচারও করান তিনি। কিন্তু এখনও মাঠে ফেরার জন্য তৈরি নন তিনি। 

বিসিসিআই-এর তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, 'স্পাইনাল সার্জন জেমস অ্যালিবোন-কে দেখানোর জন্য এনসিএ-র প্রধান ফিজিও আশিস কৌশিক-এর সঙ্গে লন্ডনে গিয়েছিলেন হার্দিক। ম্যাচ ফিটনেস ফিরে না পাওয়া পর্যন্ত আপাতত এনসিএ- তেই রিহ্যাব করবেন তিনি।'

সম্প্রতি ভারতীয় 'এ' দলের  সঙ্গে নিউজিল্যান্ড সফরে যাওয়ার জন্য পান্ডিয়ার ফিটনেস টেস্ট নেয় বিসিসিআই। কিন্তু সেই পরীক্ষায় পাশ করতে পারেননি হার্দিক। তাঁর জায়গায় শেষ মুহূর্তে দলে ঢকেন আর এক অলরাউন্ডার বিজয় শঙ্কর। 

'এ' দল থেকে ছিটকে যাওয়ার পরে বেশ কয়েকদিন সময় পেয়েছিলেন হার্দিক। তার মধ্যেই তাঁকে লন্ডনে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু চিকিৎসকের পরামর্শ পাওয়ার পরই ফের তারকা অলরাউন্ডারকে রিহ্যাব-এ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় বোর্ড। কারণ বোর্ড কর্তাদের মতো টিম ম্যানজেমেন্টও হার্দিককে নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে চাইবে না। কারণ এ বছর নিউজিল্যান্ড-এ  টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ রয়েছে। সেখানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারেন। 

টি টোয়েন্টি এবং একদিনের সিরিজের পর নিউজিল্যান্ড-এ দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবেন কোহলিরা। সেই সিরিজের জন্যই হার্দিকের নাম বিবেচনাধীন ছিল। কিন্তু আপাতত তাঁর বিকল্প খুঁজে নেওয়া ছাড়া উপায় নেই নির্বাচকদের সামনে। 

বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও ইতিমধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন, 'ফিট হয়ে মাঠে ফিরতে কিছুটা সময় লাগবে হার্দিকের।'

Hardik Pandya, India vs NEW Zealand, হার্দিক পান্ডি