উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগ দাবি করলেন ভীম সেনাপ্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ। উত্তরপ্রদেশের হাথরসে ১৯ বছর বয়সী দলিত তরুণীকে গণধর্ষণ করার প্রতিবাদে শুক্রবার সন্ধ্যায় ভীম সেনা এবং আম আদমি পার্টির সমর্থকরা নয়াদিল্লির যন্তর মন্তর চত্ত্বরে জড়ো হয়েছিলেন। বিক্ষোভে যোগ দিয়েছিলেন ভীমসেনা প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, সিপিএম'এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি এবং সিপিআই নেতা ডি রাজা।

সেখানেই ভীমসেনা প্রধান বলেন, তিনি নিজে হাতরসে যাবেন। উত্তরপ্রদেশের মুখ্য়মন্ত্রী পদত্যাগ না করা পর্যন্ত এবং ন্যায়বিচার না পাওয়া পর্যন্ত তাঁদের সংগ্রাম চলবে বলে জানিয়েছেন তিনি। সেইসঙ্গে এই ঘটনার বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন চন্দ্রশেখর আজাদ। সিপিএম'এর সাধারণ সম্পাদক ইয়েচুরি বলেন, এই ঘটনার পর উত্তরপ্রদেশ সরকারের ক্ষমতায় থাকার কোনও অধিকার নেই। ন্যায়বিচারই তাদের দাবি। আর আপ প্রধান বলেন, এই ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়।

এর আগে এক ভিডিও বার্তায় চন্দ্রশেখর আজাদ দাবি করেছিলেন, ওই দলিত কন্যার নৃশংস ধর্ষণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে মুখ খুলতে হবে। তিনি বলেন, 'নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী দলিতদের পা ধুয়ে দেন, কিন্তু উত্তরপ্রদেশের এক দলিত কন্যাকে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করা হলে চুপ থাকেন'।