ফের বন্যার আতঙ্ক ফিরে এল কেরলে। বৃহস্পতিবার থেকে লাগাতার বৃষ্টির জেরে কার্যত বিপর্যস্ত কেরলের জনজীবন। ভারতীয় আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, আগামী কয়েকদিনে সেখানে ভারী থেকে অতি ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

পাশাপাশি একটি বেসরকারি আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জুলাই-এর ২২ তারিখ পর্যন্ত কেরলের বৃষ্টিপাতের পরিমাণ রেকর্ড করবে। উত্তর বঙ্গোপোসাগরের ওপর বাড়তে থাকা নিম্নচাপের জেরেই আগামী ৫ থেকে ৬ দিন পর্যন্ত ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। আর এর ফলেই বন্যার আশঙ্কাকে একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। 

 

কেরলের পুন্নালুর, আলাপুজা, থ্রিসুর, কোজিকোডে এবং ওয়ানড়- এই পাঁচ জেলায়, বন্যার সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের তরফ থেকে এই পাঁচ জেলায় জারি করা হয়েছে লাল সতর্কতা। কারণ এই পাঁচ জেলাতেই বন্যার আশঙ্কা সবথেকে বেশি। সমুদ্রতীরবর্তী অঞ্চলে ঝড়ো হাওয়া বওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে। তাই জেলে ভাইদের সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ার ক্ষেত্রে জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

আরও জানা গিয়েছে প্রাথমিকভাবে তিরুবননন্তপুরম, কোল্লাম, আলাপ্পুজা, কোচি, ইদ্দুকি এবং ত্রিসুর-এ প্রাথমিকবাবে বৃষ্টিপাত বেশি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এরপর আস্তে আস্তে নিম্নচাপ অক্ষরেখা উত্তরের দিকে সরে যাবে বলে জানা গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত রেকর্ড বলছ চলতি মাসের শুরু থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হয়েছে ৪৭ শতাংশ। আর সাম্প্রতিক পরিস্থিতি কেরলের সেই ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে।