মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন। ফলে অসংখ্য পুস্পস্তবক উপহার হিসেবে তাঁর কাছে আসছে আগাম শুভেচ্ছা হিসেবে। কিন্তু ঝাড়খণ্ডের হবু মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন পুষ্পস্তবক চান না। বরং তার বদলে বই চান তিনি। 

এ দিন নিজেই টুইট করে এ কথা জানিয়েছেন ঝাড়খণ্ডের হবু মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি সবার কাছেই অনুরোধ করেছেন পুষ্পস্তবক না দিয়ে যেন বই দেওয়া হয় তাঁকে। তিনি জানিয়েছেন, শুভেচ্ছা জানিয়ে যে বিপুল সংখ্যক ফুল তাঁর কাছে আসছে, সেগুলির যত্ন নিতে না পারলে তাঁরই খারাপ লাগে। 

আরও পড়ুন- ঝাড়খণ্ডেও ঝরে গেল বিজেপি সরকার, কী বলছেন অমিত চাণক্য শাহ

আরও পড়ুন- ক্ষমতা বদলেছে ঝাড়খণ্ডে, এবার ম্যাসাঞ্জোরে নীল- সাদার আশায় অনুব্রত

আরও একটি টুইটে সোরেন জানান, যাঁরা তাঁকে বই দেবেন, তাঁরা যেন নিজের নামও সেখানে লিখে দেন। কারণ পরবর্তী সময়ে ওই বইগুলি একটি গ্রন্থাগারে রাখা হলে তা থেকে বহু মানুষ জ্ঞানলাভ করতে পারবেন। 
আগামী রবিবার শপথ নেবেন হেমন্ত সোরেন। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গাঁধী, রাহুল গাঁধী, প্রিয়ঙ্কা গাঁধী,  পি চিদম্বরম, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের উপস্থিত থাকার কথা। 

এ ছাড়াও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অশোক গেহলট, উদ্ধব ঠাকরে, অরবিন্দ কেজরিবাল, কমল নাথ- সহ বিজেপি বিরোধী দলগুলি দ্বারা শাসিত বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং বিরোধী নেতাদের উপস্থিত থাকার কথা।  উপস্থিত থাকতে পারেন শরদ পাওয়ার, মায়াবতী, অখিলেশ যাদব, স্ট্যালিন-এর মতো নেতানেত্রীরাও। বিজেপি-কে ক্ষমতাচ্যুত করে ঝাড়খণ্ডে বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হয়েছে জেএমএম-কংগ্রেস- আরজেডি জোট। বৃহস্পতিবার হেমন্ত সোরেনকে সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানান রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মু।